top of page

ধেয়ে আসছে ইয়শ, সময়ের আগেই ঘরে ধান, আম তুলছেন কৃষকরা

বুধবার সন্ধে নাগাদ পারাদ্বীপ ও সাগরদ্বীপের মাঝামাঝি কোনও জায়গায় আছড়ে পড়বে ঘূর্ণিঝড় ইয়শ৷ ইতিমধ্যে উপকূলবর্তী জেলাগুলিকে যশ নিয়ে সতর্ক করেছে রাজ্য সরকার৷ ইয়শের ঝোড়ো হাওয়া ও অতিভারি বৃষ্টির সম্ভাবনায় আতঙ্কিত মালদার চাষিরা। ইয়শের হাত থেকে ফসল রক্ষা করতে সময়ের আগেই ধান, আম, লিচু ঘরে তুলতে শুরু করেছে চাষিরা।




পুরাতন মালদার এক কৃষক জানান, ধান কাটার কাজ চলছে৷ এখনও অনেক ধান মাঠে পড়ে রয়েছে৷ ইয়শ নামে যে ঘূর্ণিঝড় আসছে তাতে ধানের খুব ক্ষতি হবে৷ তাই আধপাকা ধানও কেটে নেওয়া হচ্ছে। হরিশ্চন্দ্রপুরের এক আমচাষি জানান, কয়েকদিন আগের শিলাবৃষ্টিতে আমের বেশ ক্ষতি হয়েছে৷ ফের বড়োসড়ো ঝড় আসছে৷ তাই আর‌ও ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে কাঁচা আম পেড়ে নেওয়া হচ্ছে।



এদিকে ঘূর্ণিঝড় ইয়শ নিয়ে আজ সেচ দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন। বৈঠক শেষে সাবিনা জানান, ইয়শের প্রভাবে জুলাই কি কি ক্ষতি হতে পারে তা নিয়ে বৈঠক করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ইতিমধ্যে কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে। শীঘ্রই সেই ফোন নম্বর জেলাবাসীকে জানানো হবে। বাঁধের ক্ষতির রুখতে প্রস্তুত রাখা হয়েছে বালি ভরতি বস্তা।



আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page