top of page

১০ বছর নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ, কর্মবিরতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মীরা

অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণের দাবিতে কর্মবিরতিতে সামিল হলেন গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিকভবনে কর্মবিরতির পাশাপাশি অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হন স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মীরা।



বর্তমানে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২১ জন অস্থায়ী কর্মী ও ১৬ জন স্থায়ী কর্মী কর্মরত। অস্থায়ী কর্মীদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একাধিকবার কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞাপন প্রকাশিত হয়েছে কিন্তু একবারও কর্মী নিয়োগ করা হয়নি। শুভায়ু দাস নামে এক অস্থায়ী কর্মী জানান, ২০১০ সালের পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো কর্মী নিয়োগ করা হয়নি। নিয়োগের জন্য আমরা উপাচার্যের দ্বারস্থ হয়েছি। উপাচার্য কখনও একমাস, কখনও দুমাস করে সময় চেয়েছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনো কর্মী নিয়োগ করা হয়নি। এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২২ জন অস্থায়ী কর্মী কোনোরকম সরকারি সুযোগসুবিধা পায়না। মুখ্যমন্ত্রী অস্থায়ী কর্মীদের জন্য নানা সুযোগসুবিধা দিয়েছেন। কিন্তু গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে এই সমস্ত সুবিধা পায় না। অস্থায়ী কর্মীদের দাবি মেনে না নেওয়া হলে এই আন্দোলন জারি থাকবে।

コメント


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page