ইংরেজির বানে ভাসবে মালদাও

ইংরেজির বানে ভাসবে মালদাও

শীতের ভোর৷শরীরে লেপের ওম৷ওমে স্বপ্ন যে কখন গ্রাস করেছে, বুঝতে পারেনি পল্টু৷হঠাৎ লেপটা সরে গেল৷গায়ে একটা শীতল ছ্যাঁকা৷লেপটা আরও একবার গায়ে টানার চেষ্টা করল সে৷পারল না৷মা যে কখন লেপটা তার নাগাল থেকে সরিয়ে নিয়েছে বুঝতে পারেনি৷ডাক্তার হওয়ার স্বপ্নটা সবে জমে উঠেছিল৷কাঁদো কাঁদো মুখে বিছানা থেকে উঠে পড়ে পল্টু৷স্কুল যেতে হবে যে! তাকে তৈরি করে স্কুল পাঠিয়ে তবে তো মা কাজের বাড়ি যাবে৷যাই হোক, তৈরি হয়ে বইয়ের আধছেঁড়া ব্যাগটা কাঁধে ঝুলিয়ে পল্টু হাঁটা দিল স্কুলের পথে৷রাস্তায় হুশহুশ করে বেরিয়ে যাচ্ছে গাড়িগুলো৷সেগুলোতে পরিপাটি ছেলেমেয়েদের দঙ্গল৷ওরা সব ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়ে৷ওকে মা বলেছিল৷সেসব স্কুলে পড়ার নাকি অনেক খরচ৷পল্টুরও ইচ্ছে ছিল, ও ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়বে৷মাকেও বলেছিল সেকথা৷বলেছিল, তাদের স্কুলে ইংরেজি খুব বেশি পড়ানো হয় না৷ডাক্তার হতে গেলে ইংরেজিটা ভালো জানতে হবে যে! কিন্তু মা সাফ জানিয়ে দিয়েছিল, ওইসব স্কুলে তাকে পড়ানোর খরচ জোগাড় করতে পারবেন না তিনি।



রাজ্য শিক্ষাদপ্তর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে ১০০টি সরকার প্রেষিত ইংরেজি মাধ্যম স্কুল চালু করা হবে

উপরের অংশটা একটা উপমা মাত্র৷কিন্তু শুধুমাত্র অল্প ইংরেজি জানা বা না জানার জন্য এই মালদা জেলায় পল্টুর মতো অনেক ছেলেমেয়েই একটা অংশের পর পড়াশোনার গণ্ডি পেরোতে পারে না৷স্বপ্ন তাদের মরে যায় শুরুতেই৷ অর্থনৈতিক মানদণ্ডে রাজ্যের মধ্যে এই জেলা পিছনের সারিতে৷স্বাভাবিকভাবে এই জেলায় শিক্ষিতের হারও ততটা বলার মতো নয়৷ সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এখন জেলার আনাচেকানাচে গজিয়ে উঠেছে বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল৷অবশ্য ছবিটা শুধু এই জেলাতেই নয়, ছড়িয়ে রয়েছে রাজ্য জুড়ে৷শেষ পর্যন্ত নড়েচড়ে বসেছে রাজ্য সরকার৷ সম্প্রতি রাজ্য শিক্ষাদপ্তর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে ১০০টি সরকার প্রেষিত ইংরেজি মাধ্যম স্কুল চালু করা হবে৷ সেসব স্কুলের পঠনপাঠন শুরু হবে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই৷মূলত যেসব স্কুলের পরিকাঠামো রয়েছে, কিন্তু পড়ুয়া তেমন নেই, সেই স্কুলগুলিতেই চালু করা হচ্ছে ইংরেজি মাধ্যমে পঠনপাঠন৷এই জেলার তিনটি স্কুলও সেই তালিকায় ঠাঁই পেয়েছে৷

শিক্ষাদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১৮ সালে মালদার দুটি নামি স্কুলকে ইংরেজি মাধ্যমে পড়াশোনা চালু করার নির্দেশ দেওয়া হয়৷স্কুল দুটি হল মালদা রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ বিদ্যামন্দির ও বার্লো গার্লস হাইস্কুল৷কিন্তু এই দু’টি স্কুলেও মূলত উচ্চবিত্ত ঘরের ছেলেমেয়েরাই পড়াশোনা করে৷মাধ্যমিক কিংবা উচ্চমাধ্যমিক স্তর পেরিয়ে যাওয়ার পর এই দুটি স্কুলের ছেলেমেয়েদের বেশিরভাগই উচ্চশিক্ষার জন্য জেলার বাইরে পাড়ি দেয়৷তবে এখনও এই দুটি স্কুলে সেই পঠনপাঠন শুরু হয়নি৷জানা গিয়েছে, ২০১৯ সালে বার্লো গার্লস হাইস্কুলে তা চালু হতে চলেছে৷তবে রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ বিদ্যামন্দিরে এই ব্যবস্থা চালু হতে ২০২০ সাল লেগে যাবে। এই পরিস্থিতিতে জেলা শিক্ষাদপ্তর মালদার আরও কয়েকটি স্কুলে ইংরেজি মাধ্যমে পঠনপাঠন চালু করার উদ্যোগ নেয়৷ স্কুলগুলি হল মকদুমপুর গার্লস হাইস্কুল, শিবাণী অ্যাকাডেমি ও প্রান্তপল্লি গার্লস হাইস্কুল। এর মধ্যে শিবাণী অ্যাকাডেমি উচ্চমাধ্যমিক স্তরে ইতিমধ্যেই উন্নীত৷জেলা শিক্ষাদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, এই তিনটি স্কুলে পর্যাপ্ত পরিকাঠামো থাকা সত্ত্বেও কোনো স্কুলে বর্তমানে পড়ুয়ার সংখ্যা ১০০ জনের বেশি নয়৷ শিক্ষাদপ্তরের মতে, এমন হলে মৃতপ্রায় স্কুলগুলিতে আবার পড়ুয়াদের জোয়ার দেখা দেবে৷ মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত, এমনকি নিম্নবিত্ত পরিবারের ছেলেমেয়েরাও ইংরেজি ভাষায় উন্নত হতে পারবে৷ নিজেদের ভবিষ্যতের সঙ্গে পরিবারের আর্থসামাজিক অবস্থাও তারা সুরক্ষিত করতে পারবে৷


সরকারি স্তরে ইংরেজি ভাষায় শিক্ষাদান শুরু হলে সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বাঙালি পড়ুয়াদের প্রভাব ফের বাড়তে শুরু করবে৷

রাজ্য সরকারের এই ভাবনাকে স্বাগত জানাচ্ছেন বিদ্বজ্জনরা৷তাঁদের মতে, বাঙালি পড়ুয়াদের মেধা যথেষ্ট ভালো৷কিন্তু ইংরেজি শিক্ষার অভাবে তারা ক্রমশ পিছিয়ে পড়ছে৷এই অবস্থায় সরকারি স্তরে ইংরেজি ভাষায় শিক্ষাদান শুরু হলে সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বাঙালি পড়ুয়াদের প্রভাব ফের বাড়তে শুরু করবে৷একসময় যে সব রাজ্যের শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন উঠত, শুধুমাত্র ইংরেজি মাধ্যমে পড়াশোনা চালু করে সেইসব রাজ্যের পড়ুয়ারা এখন দেশের মধ্যে প্রথম সারিতে৷রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত ফের বাঙালি পড়ুয়াদের পুরোনো স্বর্ণযুগে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে৷


#BarlowGirlsHighSchool #RamakrishnaMissionVivekanandaVidyamandir

হেডলাইন

প্রতিবেদন

মহানন্দার উজান স্রোতে ভবানীপুরে অশনির ঘণ্টা বাজছে

ফি বছর বর্ষায় বেড়ে যায় মহানন্দার জলস্তর। স্রোতের আওয়াজ ঘুমন্ত গ্রামবাসীদের কানের পর্দায় যেন ধাক্কা দেয়৷ এবারও বেড়েছে মহানন্দার জল৷ খানিকটা..

বিজ্ঞাপন

ফলো করুন
  • Facebook
  • Instagram
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest

সব খবর ইনবক্সে!

প্রতিদিন খবরের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

Aamader Malda Worldwide, the only media of your hometown and its thoughts. Here you can share and express your views and thoughts and you'll get here the essence of MALDAIYA CULT...

You can reach us via email or phone.  P +91 3512-260260  E response@aamadermalda.in

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
  • Instagram
  • RSS

Copyright © 2020 Aamader Malda. All Rights Reserved.