top of page

পেপার ব্যাগ তৈরি করে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে মালদার খুদে

প্লাস্টিক মুক্ত পরিবেশ গড়তে পেপার ব্যাগের দিকে জোর দিচ্ছে সরকার। এরই মধ্যে পেপারের ক্ষুদ্র ব্যাগ তৈরি করে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে জায়গা করে নিল আট বছরের আত্মজা। গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের দিকে লক্ষ্য এখন আত্মজার অভিভাবকদের।


মাস ছয়েক আগে চাকরি সূত্রে মালদায় এসেছিলেন বাবুসোনা সরকার। প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক তিনি। বর্তমানে তাঁরা রতুয়ার নাপিতপাড়ায় থাকছেন। স্ত্রী মৌসুমি সরকার হস্তশিল্পী। তাঁদের মেয়ে এখন ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডস হোল্ডার। আত্মজা দ্বিতীয় শ্রেণিতে পাঠরত। মায়ের হাত ধরেই শিল্পের প্রতি আকর্ষণ তার।


আত্মজার বাবা জানান, গত ৬ সেপ্টেম্বর ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের তরফে তাঁদের ই-মেইল করে আত্মজার কাগজের ব্যাগ নথিভুক্ত হওয়ার কথা জানানো হয়েছে। ইমেইলে তাঁদের শংসাপত্রও পাঠানো হয়েছে। সেই শংসাপত্রে উল্লেখ রয়েছে বাচ্চাদের বিভাগে সবচেয়ে ছোটো কাগজের ব্যাগ (৫ X ২.৪ সেন্টিমিটার) তৈরি করেছে আত্মজা। আত্মজা মায়ের থেকেই শিখছে। সে পুতুলের জন্য অনেক কিছু তৈরি করে। একদিন, পুতুলের জন্য ব্যাগ তৈরি করে আত্মজা। সেই ছোটো ব্যাগ আত্মজাকে এই সম্মান এনে দিয়েছে।



আত্মজার মা জানান, তিনি কাজ করতে বসলে ছোটো থেকে মেয়ে তাঁর পাশে রং-তুলি নিয়ে খেলত। সেই থেকেই শিল্পের প্রতি আকর্ষণ বাড়তে থাকে আত্মজার। তাঁরা চান, এভাবে খেলতে খেলতেই শিখতে থাকুক আত্মজা। ভবিষ্যতে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম তুলুক সে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page