top of page

পুরভোটে নতুন প্রজন্মই বামেদের বেঁচে থাকার চিরাগ

ফলাফল কী হবে জানা নেই। তবে মালদার দুই পুরসভার ভোটাররা আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি পুর নির্বাচনে অংশ নেবেন। এই মুহূর্তে চলছে প্রচার। মিছিল-মিটিংয়ে ব্যস্ত দুই শহর। শাসক তৃণমূল হুঙ্কার দিতে শুরু করেছে, দুই পুরসভাই হবে বিরোধীশূন্য। শাসকদলকে টক্কর দিতে তৈরি বিজেপিও। তারাও দাবি করছে, এই ভোটের ফলও আগের দুই ভোটের থেকে আলাদা কিছু হবে না।


দুই ফুলের লড়াই চলতে থাকুক। কিন্তু বাইশের পুর নির্বাচন লালবাড়ির প্রায় অন্ধকার ঘরে ইতিমধ্যে আলো জ্বালিয়ে দিয়েছে। রাজনৈতিক মহল কিন্তু ইতিমধ্যে সেকথা স্বীকার করে নিয়েছে। কারণ, এই প্রথম তাদের দুই পুরসভার প্রার্থী তালিকায় নতুন মুখের ছড়াছড়ি। ২০-২৫ বছরের মুখের সংখ্যাও রয়েছে বেশ। যে অভিজ্ঞদের এবার টিকিট দেওয়া হয়েছে, তাঁদের মাথাতেও কালো চুলের আধিক্য। কিন্তু নিজেদের মনোভাবে এত বদল এনেও ভোটের ফলে কি মান রাখা যাবে? সময় বলবে।



মালদা জেলার এক প্রবীণ সিপিএম নেতা বলছিলেন, এগারোর আগে থেকেই তাঁরা পার্টিতে বলে আসছিলেন, ভোট আর পন্থা, দুটো আলাদা। বামপন্থা একটা না ফুরোনোর জিনিস। কিন্তু ভোট আসে, আবার ফুরিয়েও যায়। তাই ভোটকে মাথায় রেখে দল চালাতে গেলে প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতেই হবে। মানুষ একই মুখ বারবার দেখে ক্লান্ত। প্রবীণ জনপ্রতিনিধিদের কাজকর্ম কিংবা তার ধরনও তাঁরা জানেন। ভালো কাজ করা জনপ্রতিনিধিদের মানুষই ফের প্রার্থী হিসাবে দেখতে চান। কিন্তু যাঁদের কাজে মানুষ সন্তুষ্ট নয়, তাঁদের বদলাতেই হবে। মানুষের উপর জোর করে প্রার্থী চাপিয়ে দেওয়ার ফল কী হয়, অবশেষে তা বুঝতে পেরেছেন নেতৃত্ব। দলে যেমন নতুন মুখ নিয়ে আসা হচ্ছে, তেমনই এবার তরুণ মুখের প্রার্থীদেরই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। ফল কী হবে জানা নেই, তবে নেতৃত্বের এই সিদ্ধান্তে দলটা যে বাঁচবে, তা নিশ্চিত।


বাম নেতৃত্বের মানসিক পরিবর্তনের বিষয়টি কিন্তু ধরা পড়েছিল করোনাকালেই। রেড ভলান্টিয়ার্স গঠন যেন বলে দিয়েছিল, আগামী নির্বাচনগুলিতে তরুণ মুখের আধিক্য থাকবে বামেদের যে কোনও কর্মসূচিতে। সেটা নির্বাচনই হোক, কিংবা সমাজসেবামূলক কাজকর্ম। নতুন এই প্রজন্ম নির্বাচনের ময়দানে বামফ্রন্টকে কতটা অক্সিজেন জোগাতে পারে সেটাই এখন দেখার। একথা ভুললে চলবে না, যে কোনও রাজনৈতিক দলের ভবিষ্যৎ নির্ভর করে নির্বাচনি সাফল্যের উপরেই।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page