বিজ্ঞাপন

দাম্পত্য কলহে অস্ত্র, ১৬ বছর পর কারাদন্ড স্বামীর

দাম্পত্য কলহে বেরিয়ে এসেছিল ধারালো অস্ত্র। স্বামীর হাঁসুয়ার আঘাতে ডান হাত খোওয়া গিয়েছিল স্ত্রী'র। এনিয়ে পুলিশে জামাইয়ের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন আহত বধূর বাবা। দীর্ঘ ১৬ বছর পর সেই মামলার রায় ঘোষণা করা হল আজ। অপরাধী স্বামীকে ১০ বছরের কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানার সাজা ঘোষণা করেছেন বিচারক। রায়ে সন্তুষ্ট আক্রান্ত স্ত্রী ও তাঁর বাবার বাড়ির লোকজন।



ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০২ সালের ১৪ অক্টোবর। পুরাতন মালদার সদরঘাট এলাকার বাসিন্দা, পেশায় শ্রমিক অনুপ দাস দাম্পত্য ঝামেলা চলাকালীন ধারালো হাঁসুয়া দিয়ে স্ত্রী'র মাথায় আঘাত করার চেষ্টা করে। প্রাণে বাঁচতে মাথা সরিয়ে নেন স্ত্রী ফুলটুসি কর্মকার দাস। কিন্তু ধারালো হাঁসুয়ার কোপে তাঁর ডান হাত কাটা যায়। খবর পেয়ে তাঁকে মালদা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন বাবার বাড়ির লোকজন। সেই ঘটনায় অনুপের বিরুদ্ধে মালদা থানায় মেয়েকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করেন ফুলটুসিদেবীর বাবা বাসুদেব কর্মকার। অনুপকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ৩২৬/৩০৭ ধারায় জামিন অযোগ্য মামলা রুজু করা হয়। বিচার শুরু হয় জেলা আদালতের ফাস্ট ট্র‍্যাক দ্বিতীয় কোর্টে।

এদিন সরকারি পক্ষের আইনজীবী মধুশ্রী সিনহা জানান, সেই ঘটনায় এদিন রায়দান করেছেন ওই কোর্টের বিচারক শরণ্যা সেন প্রসাদ। ৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণের পর গতকালই অনুপ দাসকে দোষী সাব্যস্ত করেছিলেন তিনি। এদিন বিচারক অনুপকে ১০ বছরের জেল, ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাস জেলের সাজা ঘোষণা করেন। এই রায়ে তিনি খুশি। খুশি মামলাকারীরাও। যদিও অনুপের বক্তব্য, তাকে এই মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। সে তার স্ত্রীকে অস্ত্রের আঘাত করেনি।

বিজ্ঞাপন

MGH
পপুলার
1

জেলায় দ্বিতীয় বইমেলার প্রস্তুতি শুরু

2586

জেলায় দ্বিতীয় বইমেলার প্রস্তুতি শুরু
2

স্থান বদলে শুরু হল মালদা বইমেলা, চলবে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত

3240

স্থান বদলে শুরু হল মালদা বইমেলা, চলবে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত
3

মালদায় শুরু করোনা টিকাকরণ, প্রথম টিকা পেলেন কৃষ্ণা

626

মালদায় শুরু করোনা টিকাকরণ, প্রথম টিকা পেলেন কৃষ্ণা
4

অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে মালদায় এল করোনা ভ্যাকসিন

1185

অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে মালদায় এল করোনা ভ্যাকসিন
5

বাসের জন্য নতুন স্টপেজ রথবাড়িতে

5941

বাসের জন্য নতুন স্টপেজ রথবাড়িতে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS