উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রতুয়া, মৃত্যু কংগ্রেস কর্মীর

পর পর খুনের ঘটনায় পঞ্চায়েত ভোটের আগে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রতুয়ার রাজনৈতিক আবহ৷ শুধু তৃণমূল কর্মী খুন নয়, মৃত্যু হল রতুয়ার এক কংগ্রেস কর্মীরও৷ মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এদিন সকালে এক কংগ্রেস কর্মীর মৃত্যু হয়েছে৷ গত শুক্রবার রাতে রতুয়া ১ ব্লকের চাঁদমুনি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ঝগড়াপাথার গ্রামে রাজনৈতিক দুষ্কৃতীদের ছোড়া বোমার আঘাতে জখম হয়েছিলেন তিনি৷ সেই ঘটনায় নাম জড়ায় এলাকার তৃণমূলিদের৷



নির্বাচনি কাজকর্ম সেরে শুক্রবার ঝগড়াপাথার গ্রামে একটি চায়ের দোকানে বসেছিলেন বেশ কয়েকজন কংগ্রেস কর্মী৷ রাত তখন ১১টা। সেই সময় কংগ্রেস কর্মীদের সঙ্গে এলাকার তৃণমূল কর্মীদের বিবাদ শুরু হয়৷ বিবাদ চলাকালীনই শুরু হয় বোমাবাজি৷ বোমার আঘাতে আহত হন অমূল্য মোশাহার (৩৫), ডোমা মোশাহার (৫০), জীতেন মোশাহার (২৮), হরগোবিন্দ মোশাহার (৪৫), পঞ্চা মোশাহার (৪১), কার্তিক মোশাহার (৩৫), নিখিল মোশাহার (২২) ও দুলাল মোশাহার (৩৫)৷ এরা সবাই এলাকায় সক্রিয় কংগ্রেস কর্মী হিসাবে পরিচিত৷ এদের মধ্যে অমূল্য, ডোমা ও জীতেনের আঘাত গুরুতর থাকায় রাতেই তাঁদের মালদা মেডিকেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়৷ পরে বাকিদেরও সামসী গ্রামীণ হাসপাতাল থেকে মেডিকেলে রেফার করা হয়৷ এদিন সকালে শেষ পর্যন্ত মারা যান পঞ্চা মোশাহার৷

জেলা কংগ্রেস সভানেত্রী তথা ওই এলাকার সাংসদ মৌসম নূর পঞ্চাবাবুর মৃত্যুর খবর পেয়ে এদিন মেডিকেল কলেজে যান৷ সঙ্গে ছিলেন রতুয়ার বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায়, দলীয় নেতা নরেন্দ্রনাথ তিওয়ারি সহ আরও অনেকে৷ তাঁরা পঞ্চাবাবুর পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন৷ তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন৷

মৌসম নূর জানালেন, ঝগড়াপাথার গ্রামের পরিবেশ ভালোই ছিল৷ শুক্রবার রাতে তৃণমূল কর্মীরা সেখানে কোনো কারণ ছাড়াই তাঁদের দলের কর্মীদের উপর হামলা চালায়৷ তারা বোমাবাজি করে৷ বোমার আঘাতে তাঁদের ৯ কর্মী আহত হন৷ তাঁদের মালদা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়৷ এদিন সকালে পঞ্চা মোশাহারের মৃত্যু হয়৷ মৌসমের অভিযোগ, রতুয়া এলাকায় সন্ত্রাসের রাজত্ব শুরু করেছে তৃণমূল৷ তারা অনেক আগে থেকেই কংগ্রেস প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করার জন্য চাপ দিচ্ছিল৷ মনোনয়ন প্রত্যাহার না করা হলে তারা খুনেরও হুমকি দিচ্ছিল৷ শেষ পর্যন্ত তারা নিজেদের হুমকি সত্যি প্রমাণ করে ছাড়ল৷ এই ঘটনায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের হলেও পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না৷ অথচ গতকাল রাতে রতুয়ার কুমারগঞ্জে এক তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় কংগ্রেসিদের গ্রেফতার করা হচ্ছে৷ তৃণমূলের সন্ত্রাসে ওই এলাকায় তাঁদের দলের প্রার্থীরা প্রচারে যেতে পারছিলেন না৷ সেকথা তিনি আগেই চাঁচলের মহকুমা পুলিশ আধিকারিকদের জানান৷ কিন্তু পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি৷ পুলিশ কোনো ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করছে না৷ তাঁরা চান, পুলিশ প্রতিটি ঘটনার যথাযত তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিক৷ কুমারগঞ্জে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় তাঁদের দলের কেউ যুক্ত নয়৷

জেলায় কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস সৃষ্টি করার অভিযোগ এনেছেন সম্প্রতি নির্বাচনি প্রচারে আসা রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা ৷ সেপ্রসঙ্গে মৌসম বলেন, মালদা জেলায় কংগ্রেস শক্তিশালী৷ তাই এই জেলায় সব দলের প্রার্থীরা মনোনয়ন জমা দিতে পেরেছেন৷ এখানে তৃণমূল শক্তিশালী হলে রাজ্যের অন্যান্য জেলার মতো এখানেও বিরোধীরা কেউ মনোনয়ন জমা দিতে পারতেন না৷ তাই কংগ্রেসের বিরুদ্ধে এসব মিথ্যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে৷

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক


1
কফিনবন্দি দেহ ফিরল মালদায়, স্যালুট জানিয়ে শেষ শ্রদ্ধা পুলিশের

Popular News

848

2
গঙ্গায় মিশে যেতে পারে ফুলহর, বাজছে বিপদ ঘণ্টা

Popular News

812

3
আত্মীয়ের বাড়িতে এসে গ্রেফতার বাংলাদেশি

Popular News

1300

4
বাংলাদেশে পণ্য পাঠানো বন্ধ করে দিলেন মহদীপুরের এক্সপোর্টার্সরা

Popular News

877

5
মালদা ডিভিশন তৈরি, অনুমতি মিললেই শুরু হবে ট্রেন পরিসেবা

Popular News

1064

পপুলার

বিজ্ঞাপন

টাটকা আপডেট
 

Aamader Malda Worldwide, the only media of your hometown and its thoughts. Here you can share and express your views and thoughts and you'll get here the essence of MALDAIYA CULT...

You can reach us via email or phone.  P +91 3512-260260  E response@aamadermalda.in

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
  • Instagram
  • RSS

Copyright © 2020 Aamader Malda. All Rights Reserved.