বিজ্ঞাপন

চাঁচল রাজার ‘রতনপুর হাটে’ বেআইনি দখলদারের থাবা

প্রকাশ্য দিবালোকে চুরি হয়ে যাচ্ছে রতনপুর হাটের জমি৷ সরকারি জায়গা দখল করে চলছে বেআইনি নির্মাণ কাজ। এই ঘটনায় হাটের ব্যবসায়ীরা নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। পাশাপাশি এই ঘটনায় পুলিশ ও প্রশাসনের একাংশ জড়িত থাকার অভিযোগও তুলেছেন ব্যবসায়ীরা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তর মালদায়।



শতাধিক বছর আগে এলাকার মানুষের রুজি রোজগারের কথা চিন্তা করে চাঁচলের রাজা রাসবিহারী বন্দোপাধ্যায় সামসীর রতনপুরে একটি হাটের পত্তন করেন৷ হাটের জন্য সেসময় তাঁর অধীনস্থ ৫২ বিঘা জমি দান করেন৷ এই হাটের জমি এখন সরকারি সম্পত্তি৷ কিন্তু এখন সেই হাট কার্যত জমি মাফিয়াদের দখলে চলে গিয়েছে৷ জানা যাচ্ছে, ২০০৭ সাল থেকেই এই মাফিয়ারা হাটের কিছু কিছু অংশ বিক্রি করে দিচ্ছে৷ সেখানে গজিয়ে উঠেছে পাকাবাড়ি৷ এর মধ্যে যেমন বসতবাড়ি রয়েছে, তেমনই রয়েছে স্থায়ী দোকানঘর৷ অথচ সরকারি আইন অনুযায়ী খাস জমি বিক্রি করা যায় না৷ তাহলে এই মাফিয়ারা কীভাবে সেই জমি বিক্রি করছে? কীভাবেই বা জমির রেকর্ড ক্রেতাদের নামে হয়ে যাচ্ছে? তা নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন৷ এর সঙ্গে ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দফতরের একাংশ এবং পুলিশের একাংশের যোগাযোগ রয়েছে বলে অভিযোগ করছেন অনেকেই৷

হাট ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, জমি মাফিয়াদের দাপটে হাটের আয়তন দিন দিন কমে যাচ্ছে৷ ইতিমধ্যে প্রায় ৩০ শতাংশ হাটের জমি কব্জা করে নিয়েছে মাফিয়ারা৷ কীভাবে তারা সরকারি খাস জমি নিজেদের নামে রেকর্ড করাচ্ছে, তা বোঝা যাচ্ছে না৷ আমরা এর আগে এনিয়ে একাধিকবার আন্দোলন করেছি৷ কিন্তু কোনও কাজ হয়নি৷ আমরা জানতে পেরেছি, জমি মাফিয়াদের সঙ্গে একাধিক রাজনৈতিক দলের সম্পর্ক রয়েছে৷ ফলে এই ঘটনার পিছনে যে রাজনৈতিক মদত রয়েছে তা নিয়ে আমরা নিশ্চিত৷ পাশাপাশি প্রশাসনের একাংশও জড়িত বলে শোনা যাচ্ছে।

তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন, আইএনটিটিইউসির রতুয়া ১ ব্লকের কার্যকরী সভাপতি আনারুল হক জানান, এই ঘটনার পিছনে তাঁদের দলের লোকজনেরও হাত রয়েছে৷ আমাদের দলেরই একদল মাফিয়া, যারা বিভিন্ন দল থেকে আমাদের দলে এসে ভিড়েছে, তারাই এই হাট একটু একটু করে দখল করে বিক্রি করছে৷ আমরা গোটা ঘটনা প্রশাসনকে জানিয়েছি৷ কিন্তু প্রশাসন কোনও পদক্ষেপ নিচ্ছে না।


[ আরও খবরঃ ত্রাণ তহবিলে সাহায্য না করলে চাকরি কেড়ে নেওয়ার হুমকির অভিযোগ ]

ঘটনাপ্রসঙ্গে ব্লক ভূমি ও ভূমি রাজস্ব আধিকারিক সমীরকান্তি বিশ্বাসকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারাধীন৷ সেখানে বেআইনি নির্মাণ নিয়ে এখনও পর্যন্ত আমাদের কাছে কেউ কোনও অভিযোগ জানাননি৷ অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চাঁচলের মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সজলকান্তি বিশ্বাস এপ্রসঙ্গে বলেন, এই ঘটনায় লিখিতভাবে অভিযোগ পড়েছে। ওই এলাকায় অবৈধ নির্মাণের কাজ চলছিল। ঘটনাস্থল থেকে থেকে ইতিমধ্যে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।


টপিকঃ #হাট, #জমিমাফিয়া

133 views

বিজ্ঞাপন

Valentines-day.jpg
পপুলার

567

1

নেত্রীর আগেই নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা সাবিত্রীর

নেত্রীর আগেই নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা সাবিত্রীর

842

2

দেড়শো জননেতা সহ গেরুয়া শিবিরে তৃণমূলের মালদা জেলা সাধারণ সম্পাদক

দেড়শো জননেতা সহ গেরুয়া শিবিরে তৃণমূলের মালদা জেলা সাধারণ সম্পাদক

1795

3

এখন ১২ মাস কাজ করবে মালদার সিভিক ভলান্টিয়াররা

এখন ১২ মাস কাজ করবে মালদার সিভিক ভলান্টিয়াররা

630

4

কাল মালদায় মমতা, সভামঞ্চে উঠতে করোনা পরীক্ষা

কাল মালদায় মমতা, সভামঞ্চে উঠতে করোনা পরীক্ষা

597

5

কালিয়াচকে সালিশি সভায় চলল গুলি, মৃত এক

কালিয়াচকে সালিশি সভায় চলল গুলি, মৃত এক
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS