বিজ্ঞাপন

শ্বশুরের সঙ্গে মায়ের অবৈধ সম্পর্কের জেরে আত্মঘাতী মেয়ে

শ্বশুরের সঙ্গে মায়ের অবৈধ সম্পর্কের খেসারত দিতে হল মেয়েকে। নিয়মিত অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত আত্মহননের পথ বেছে নিলেন মেয়ে। এদিন সকালে তাঁর ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পান গ্রামের লোকজন। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদার মহিষবাথানী গ্রাম পঞ্চায়েতের বদনপুর গ্রামে।


মৃতের নাম সান্তারা বিবি (২০)। বাবার বাড়ি পুরাতন মালদার বদনপুর গ্রামে। বাবা সাজিরুল শেখ বর্তমানে আরবে শ্রমিকের কাজে কর্মরত। বছর তিনেক আগে তাঁর বিয়ে হয় পুকুরিয়া থানার সাতমারা গ্রামের যুবক সাহিন শেখের সঙ্গে। তাঁদের দেড় বছরের একটি ছেলেও রয়েছে।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সান্তারার বাবার অবর্তমানে শ্বশুর তফিজুল শেখ মাঝেমধ্যে ছেলের শ্বশুরবাড়ি আসতেন। এভাবেই তাঁর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে সান্তারার মা এনারা বিবির সঙ্গে। এনিয়ে একাধিকবার সালিশি সভাও বসে। এই অবৈধ সম্পর্কের জেরে সান্তারাকে তাঁর শাশুড়ি ও স্বামী নিয়মিত কটূক্তি করত। মাঝেমধ্যে চলত মারধরও। অভিযোগ, গতকাল দেড় বছরের শিশুকে কেড়ে নিয়ে সান্তারাকে তার স্বামী ও শাশুড়ি বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এদিন সকালে বদনপুর গ্রামে ঢোকার মুখে একটি আমবাগানে তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান গ্রামবাসীরা। খবর দেওয়া হয় মালদা থানায়। অবশেষে দুপুরে পুরাতন মালদার বিডিও নরোত্তম বিশ্বাসের উপস্থিতিতে সান্তারার দেহের ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্ত করা হয়। এরপরেই মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠায় পুলিশ।

এই ঘটনায় সান্তারার দাদু দুলাল শেখ, সান্তারার শ্বশুর, শাশুড়ি, স্বামী ও মা এনারা বিবির বিরুদ্ধে মালদা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে শুরু হয়েছে পুলিশি তদন্ত। তবে এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক

বিজ্ঞাপন

MGH-Advt.jpg
পপুলার
1

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন
2

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে
3

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর
4

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি
5

করোনায় আক্রান্ত রেলকর্মীর মৃত্যু, আতঙ্ক মালদা শহরে

করোনায় আক্রান্ত রেলকর্মীর মৃত্যু, আতঙ্ক মালদা শহরে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
টাটকা আপডেট