top of page

পিঠেপুলি নয়, চাঁচলে সংক্রান্তির তৃপ্তি মুড়ি-আলুর দমে

পৌষ সংক্রান্তি মানেই পিঠে-পুলি। তবে চাঁচলের আশাপুরের সংক্রান্তি মেলায় দেখা যায় অন্য ছবি। শীতের সকালে মহানন্দায় পুণ্যস্নান করার পরে খেতে হয় মুড়ি আর চোখা আলুর দম। এই প্রথা অভিনব হলেও নতুন নয়।


দীর্ঘ কয়েক দশকের বেশি সময় ধরে মহানন্দা নদীর ধারে বসে পবিত্র স্নানের মেলা। দূর-দূরান্ত থেকে মানুষজন এদিন ছুটে আসেন আশাপুরে। মকরসংক্রান্তি উপলক্ষ্যে ১৫ দিন ধরে মেলা হয়। এই মেলার অন্যতম আকর্ষণ মুড়ি আর আলুর দম। এবছরও মহানন্দা নদীতে পুণ্যস্নান করার পর পুজো দিয়ে মুড়ি আর আলুর দমের স্বাদ নিতে দেখা গেল পূণ্যার্থীদের।



তবে এবছর বিক্রেতাদের মুখভার। করোনা আবহে অন্যান্য বছরের তুলনায় বিক্রির পরিমাণ অনেকটা কমেছে এক ধাক্কায়। মকরসংক্রান্তি উপলক্ষ্যে বিভিন্ন এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে গঙ্গাস্নানের প্রচলন রয়েছে। রতুয়ার মাগুরা, হরিশ্চন্দ্রপুরের গোহিলা, চাঁচলের আশাপুরে মকরসংক্রান্তির মেলা একটু অন্য ধরনের। মহানন্দার পাড় ঘেঁষে মুড়ি এবং আলুর দম নিয়ে শতাধিকের বেশি দোকান বসতে দেখা যায় এইসময়। করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে অনেক মানুষই চাঁচলের এই পুণ্যস্নান থেকে বিরত থেকেছেন এবছর।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

留言


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page