উপযুক্ত কর্মসংস্থানের দাবি তুললেন আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যরা

উপযুক্ত কর্মসংস্থানের দাবি তুললেন আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যরা

একসময়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ইনারা হাতে তুলেছিলেন অস্ত্র। উত্তরবঙ্গ সহ মালদা জেলার কিছু এলাকায় দেশ বিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত হয়েছিল তাঁরা। পরে রাজ্য সরকারের আবেদনে সাড়া দিয়ে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে কামতপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশন (কেএলও)-এর সদস্যরা। রাজ্য সরকারের তরফে তাঁদের পুনর্বাসন ও কর্মসংস্থানের প্ৰতিশ্ৰুতি দেওয়া হয়। কিন্তু এখনও তা বাস্তবায়িত না হওয়ায় বর্তমানে তাঁরা আর্থিক দিক দিয়ে খুবই সংকটজনক অবস্থায় পরিবার নিয়ে জীবনযাপন করছেন বলে অভিযোগ করেছে মালদা জেলার আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যরা।


ইতিমধ্যে গত ১৩ জুলাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যদের রাজ্য সরকারের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী হিসাবে নিয়োগ করেছেন। সেইমত কর্মসংস্থানের দাবিতে বুধবার জেলা পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হন সমাজের মূল স্রোতে ফিরে আসা কেএলও সংগঠনের সদস্যরা। সকাল এগারোটা নাগাদ, হবিবপুর, বামন গোলা থেকে প্রায় ১০ জন কর্মসংস্থানের দাবি জানান জেলা পুলিশসুপারের কাছে। তাদের অভিযোগ, জলপাইগুড়ি, ধুপগুড়ি,আলিপুরদুয়ারে মূল স্রোতে ফিরে আসা কেএলও সদস্যদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। কিন্তু মালদার ক্ষেত্রে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। কর্মসংস্থানের দাবিতে তাঁরা একটি দাবি পত্র তুলে দেন ডিএসপির হাতে।

সংগঠনের পক্ষ থেকে ধনঞ্জয় রায় বলেন, জেলায় প্রায় ৫০ জন আত্মসমর্পণকারী সদস্যরা অন্যের জমিতে, বা কেউ কোন দোকানে কাজ করে অতিকষ্টে পরিবার নিয়ে জীবন যাপন করছে। মুখ্যমন্ত্রী যেন এই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করেন ও তাঁদের উপযুক্ত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেন।প্রয়োজনে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সরাসরি দেখা করে তাঁদের আবেদন রাখবেন।

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক

#DigitalDesk #Misc #Video

বিজ্ঞাপন

হেডলাইন

প্রতিবেদন

রাতভর বিনিদ্র হাট

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সেই ছড়াটি মনে আছে তো? ‘হাট বসেছে শুক্রবারে, বকসিগঞ্জের পদ্মা পাড়ে৷ জিনিসপত্র জুটিয়ে এনে, গ্রামের মানুষ বেচে কেনে’...

বিজ্ঞাপন

ফলো করুন
  • Facebook
  • Instagram
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
পপুলার

ছয় হাজার লিটার স্যানিটাইজার তৈরি করল এক স্বনির্ভর গোষ্ঠী

জেলাপ্রশাসনের উদ্যোগে স্যানিটাইজার তৈরির প্রক্রিয়া খতিয়ে দেখলেন জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র। শনিবার দুপুরে ইংরেজবাজার ব্লকের কোতোয়ালি গ্রাম...

সব খবর ইনবক্সে!

প্রতিদিন খবরের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

বিজ্ঞাপন

Aamader Malda Worldwide, the only media of your hometown and its thoughts. Here you can share and express your views and thoughts and you'll get here the essence of MALDAIYA CULT...

You can reach us via email or phone.  P +91 3512-260260  E response@aamadermalda.in

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
  • Instagram
  • RSS

Copyright © 2020 Aamader Malda. All Rights Reserved.