বিজ্ঞাপন

উপযুক্ত কর্মসংস্থানের দাবি তুললেন আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যরা

একসময়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ইনারা হাতে তুলেছিলেন অস্ত্র। উত্তরবঙ্গ সহ মালদা জেলার কিছু এলাকায় দেশ বিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত হয়েছিল তাঁরা। পরে রাজ্য সরকারের আবেদনে সাড়া দিয়ে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে কামতপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশন (কেএলও)-এর সদস্যরা। রাজ্য সরকারের তরফে তাঁদের পুনর্বাসন ও কর্মসংস্থানের প্ৰতিশ্ৰুতি দেওয়া হয়। কিন্তু এখনও তা বাস্তবায়িত না হওয়ায় বর্তমানে তাঁরা আর্থিক দিক দিয়ে খুবই সংকটজনক অবস্থায় পরিবার নিয়ে জীবনযাপন করছেন বলে অভিযোগ করেছে মালদা জেলার আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যরা।


ইতিমধ্যে গত ১৩ জুলাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে আত্মসমর্পণকারী কেএলও সদস্যদের রাজ্য সরকারের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী হিসাবে নিয়োগ করেছেন। সেইমত কর্মসংস্থানের দাবিতে বুধবার জেলা পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হন সমাজের মূল স্রোতে ফিরে আসা কেএলও সংগঠনের সদস্যরা। সকাল এগারোটা নাগাদ, হবিবপুর, বামন গোলা থেকে প্রায় ১০ জন কর্মসংস্থানের দাবি জানান জেলা পুলিশসুপারের কাছে। তাদের অভিযোগ, জলপাইগুড়ি, ধুপগুড়ি,আলিপুরদুয়ারে মূল স্রোতে ফিরে আসা কেএলও সদস্যদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। কিন্তু মালদার ক্ষেত্রে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। কর্মসংস্থানের দাবিতে তাঁরা একটি দাবি পত্র তুলে দেন ডিএসপির হাতে।

সংগঠনের পক্ষ থেকে ধনঞ্জয় রায় বলেন, জেলায় প্রায় ৫০ জন আত্মসমর্পণকারী সদস্যরা অন্যের জমিতে, বা কেউ কোন দোকানে কাজ করে অতিকষ্টে পরিবার নিয়ে জীবন যাপন করছে। মুখ্যমন্ত্রী যেন এই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করেন ও তাঁদের উপযুক্ত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেন।প্রয়োজনে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সরাসরি দেখা করে তাঁদের আবেদন রাখবেন।

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক

#DigitalDesk #Misc #Video

বিজ্ঞাপন

MGH-Advt.jpg
পপুলার
1

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন
2

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে
3

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর
4

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি
5

করোনায় আক্রান্ত রেলকর্মীর মৃত্যু, আতঙ্ক মালদা শহরে

করোনায় আক্রান্ত রেলকর্মীর মৃত্যু, আতঙ্ক মালদা শহরে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
টাটকা আপডেট