বিজ্ঞাপন

মদ্যপ অবস্থায় গৃহস্থ বাড়িতে তাণ্ডব পুলিশের

এবারে তল্লাশির নামে মদ্যপ অবস্থায় একটি গৃহস্থ বাড়িতে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠল ইংরেজবাজার থানার পুলিশের বিরুদ্ধে। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকাল থেকেই তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে ইংরেজবাজার থানার অধীন বাগবাড়ি সংলগ্ন রায়পাড়া এলাকায়। ঘটনার প্রতিবাদে এলাকার সমস্ত জনগণকে নিয়ে পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হওয়ার কথা জানিয়েছেন স্থানীয় কাউন্সিলর। তবে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ইংরেজবাজার থানার তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

মদ্যপ অবস্থায় গৃহস্থ বাড়িতে তাণ্ডব পুলিশের
দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে পুলিশকর্মীরা তাঁর স্বামীর কলার ধরে টেনে তোলেন। ঘরের সমস্ত জিনিসপত্রও লণ্ডভণ্ড করেন বলে অভিযোগ

রায়পাড়ার বাসিন্দা পেশায় রাজমিস্ত্রি মদন রায় বাড়িতে স্ত্রী রেখাদেবী ছাড়াও মা, ভাই ও ছেলেমেয়ে নিয়ে বাস করেন। রেখাদেবীর অভিযোগ, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ ৮-১০ জন পুলিশকর্মী বাড়ির পিছন দিক দিয়ে তাঁদের বাড়িতে ঢুকে পড়ে দরজায় ধাক্কা দিয়ে তাঁর স্বামী বাড়িতে রয়েছেন কি না তা জিজ্ঞেস করেন। স্বাভাবিকভাবে অত রাতে বাড়ির দরজায় ধাক্কার আওয়াজ শুনে ভয় পেয়ে আগন্তুকের পরিচয় জানতে চাইলে, বাইরে থেকে আগন্তুক জানান যে তিনি মদনের দাদা। এরপরই স্বামীকে ঘুম থেকে তোলার চেষ্টা করেন রেখাদেবী, কিন্তু ঘুম থেকে ওঠেননি মদনবাবু। এরই মধ্যে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে পুলিশকর্মীরা তাঁর স্বামীর কলার ধরে টেনে তোলেন। ঘরের সমস্ত জিনিসপত্রও লণ্ডভণ্ড করেন বলে অভিযোগ। এমনকি তাঁদের ছেলে কমলের মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা চলছে এই কথা জেনেও পুলিশকর্মীরা তার সমস্ত বইপত্র তছনছ করে দেন বলে অভিযোগ করেন রেখাদেবী। এরপর তাঁর স্বামীকে আটক করে থানায় নিয়ে চলে যান বলে জানান রেখাদেবী।

মদনবাবুর পাশের বাড়িতে থাকেন তাঁদের এক আত্মীয় তরুণ রায়। তিনি মালদা রেল রানিং রুমে সহায়কের কাজ করেন। তাঁর বাড়িতে রয়েছেন স্ত্রী মৌসুমিদেবী ও দুই ছেলেমেয়ে। মৌসুমিদেবী বলেন, রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ তাঁর স্বামী কাজ থেকে ঘরে ফিরে যখন ভাত খেতে বসেছিলেন ঠিক তখনই বাইরের দরজা ভেঙে পুলিশ তাঁদের বাড়িতে ঢুকে পড়ে তাঁর কাকা শ্বশুর সুবল রায়ের খোঁজ করে। এইসময় তাঁর স্বামী ঘরের বাইরে বেরিয়ে বলেন যে সুবলবাবুর বাড়ি এটি নয়, তারপর চলে যায় পুলিশ।

মৌসুমিদেবীর অভিযোগ, সাধারণ মানুষ পুলিশের উপর ভরসা করে থাকে, কিন্তু সেই পুলিশই যদি রাতের বেলায় গৃহস্থ বাড়িতে এভাবে অত্যাচার চালায়, তবে তাঁরা কার ভরসায় বসবাস করবেন?

গোটা ঘটনার তীব্র সমালোচনা করেছেন স্থানীয় কাউন্সিলর দুলালনন্দন চাকি। তিনি বলেন, বুধবার সকালে ফোনে খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর সবাই তাঁকে জানান কোনও কারণ না জানিয়েই মঙ্গলবার রাতে পুলিশকর্মীরা মদ্যপ অবস্থায় এলাকার তিনটি বাড়িতে অত্যাচার চালিয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা কোনও সার্চ ওয়ারেন্ট ছাড়াই পুলিশ এই কাজ করেছে। তিনি জানিয়েছেন যে এলাকার মহিলাদের নিয়ে ইংরেজবাজার থানা ও পুলিশ সুপারের কাছে যাবেন এর প্রতিবাদ করতে। বিষয়টি লিখিতভাবেও পুলিশ সুপারকে জানাবেন বলে জানিয়েছেন দুলালবাবু।


#Malda #EnglishBazar

বিজ্ঞাপন

MGH.jpg
পপুলার
1

করোনায় মৃত ইংরেজবাজারের জয়েন্ট বিডিও

করোনায় মৃত ইংরেজবাজারের জয়েন্ট বিডিও
2

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী
3

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল
4

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ
5

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি
Earnbounty_300_250_0208.jpg