মাধ্যমিকে জয়জয়কার মালদার, প্রথম দশে সাত

মাধ্যমিকে জয়জয়কার মালদার, প্রথম দশে সাত

এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষার মেধাতালিকায় মোট ৫৬ জনের মধ্যে মালদার ৭ জন জায়গা করে নিয়েছে৷ জেলার ছাত্রছাত্রীদের সাফল্যে খুশির হওয়া শিক্ষা মহলে৷ মাধ্যমিকে এবার উত্তরবঙ্গেরই সাফল্য বেশি৷ সবাইকে ছাপিয়ে গিয়েছে কোচবিহার জেলা৷ তারপরেই রয়েছে মালদা জেলার ছেলেমেয়েরা৷



অক্রুরমণি করোনেশন ইন্সটিটিউশনের ছাত্র অরিন্দম সাহা এবারের মাধ্যমিকে ৬৮২ নম্বর পেয়ে অষ্টম স্থান লাভ করেছে৷ অরিন্দম ভূগোলে একশোতে ১০০ নম্বর পেয়েছে, এছাড়া অঙ্কে ৯৯, ভৌতবিজ্ঞান ও জীবনবিজ্ঞানে ৯৮, ইংরেজি ও ইতিহাসে ৯৬ ও বাংলায় ৯৫ নম্বর পেয়েছে৷ দিনে ৮-৯ ঘণ্টা পড়াশোনা করত অরিন্দম৷ ফেসবুক, হোয়াটস্ অ্যাপেও ছিল পাশাপাশি৷ ৪ জন গৃহশিক্ষক ছিল তার৷ বাবা বিজয়কুমার সাহা পেশায় দলিল লেখক৷ ভবিষ্যতে ফিজিক্স নিয়ে পড়াশোনা করতে চায় অরিন্দম৷ ওই স্কুলেরই আরেক ছাত্র অরিত্র সরকার ৬৮০ নম্বর পেয়ে মেধা তালিকায় দশম স্থান পেয়েছে৷ অরিত্র জীবনবিজ্ঞানে একশোতে ১০০, অঙ্ক ও ভূগোলে ৯৯, ভৌতবিজ্ঞানে ৯৮, বাংলায় ৯৭, ইংরেজিতে ৯৬ ও ইতিহাসে ৯১ পেয়েছে৷ অরিত্রর নেশা কবিতা লেখা৷ পড়াশোনার জন্য নির্দিষ্ট কোনও সময়সীমা ছিল না তার৷ অঙ্ক নিয়ে ভবিষ্যতে এগোতে চায় সে৷ বাবা অরুণচন্দ্র সরকার পেশায় প্রধান শিক্ষক৷ ৫ জন গৃহশিক্ষক ছাড়াও অরিত্রকে সবসময় সাহায্য করতেন তার বাবা-মা৷

রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ বিদ্যামন্দিরের ফলও প্রতিবছরের মতো এবারও বেশ ভালো৷ এবার এই স্কুল থেকে ৩ জন মেধাতালিকায় জায়গা করে নিয়েছে৷ যুগ্মভাবে নবম হয়েছে অম্লান ভট্টাচার্য ও সায়ন্তন চৌধুরি৷ দু’জনেই পেয়েছে ৬৮১ নম্বর৷ অম্লান অঙ্ক ও ভৌতবিজ্ঞানে একশোতে ১০০, জীবনবিজ্ঞান ও ভূগোলে ৯৯, বাংলায় ৯৮, ইতিহাসে ৯৫, ইংরেজিতে ৯০ পেয়েছে৷ প্রয়াত দাদুর স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে খুশি সে৷ ভবিষ্যতে এইমস থেকে পড়াশোনা করে অধ্যাপক হতে চায় অম্লান৷ এই স্কুলেরই সায়ন্তন অঙ্কে একশোতে ১০০, জীবনবিজ্ঞান ও ভূগোলে ৯৯, ভৌতবিজ্ঞানে ৯৮, বাংলা ও ইতিহাসে ৯৬, ইংরেজিতে ৯৩ নম্বর পেয়েছে৷ চিকিৎসক হওয়ার ইচ্ছে থাকলেও ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা নিয়ে ধাপে ধাপে ভাবতে চায় সায়ন্তন৷ পুরোনো স্কুলেই একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে চায় সে৷ এই স্কুল থেকে এবার দশম হয়েছে আরও এক ছাত্র মীর মহম্মদ ওয়াসিফ৷ তার প্রাপ্ত নম্বর হল অঙ্ক, ভৌতবিজ্ঞান ও জীবনবিজ্ঞানে ৯৯, ভূগোল ও বাংলায় ৯৮, ইতিহাসে ৯৭ এবং ইংরেজিতে ৯০৷ বর্তমানে ওয়াসিফ রাজস্থানের কোটায় একটি কোচিং সেন্টারে রয়েছে৷

অষ্টম - অরিন্দম সাহা, অক্রুরমণি করোনেশন ইন্সটিটিউশন – প্রাপ্ত নম্বর ৬৮২

নবম - অম্লান ভট্টাচার্য, রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ বিদ্যামন্দির - প্রাপ্ত নম্বর ৬৮১

নবম - সায়ন্তন চৌধুরি, রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ বিদ্যামন্দির - প্রাপ্ত নম্বর ৬৮১

নবম - রফিকুল হাসান, মোজমপুর হাইস্কুল- প্রাপ্ত নম্বর ৬৮১

দশম - অরিত্র সরকার, অক্রুরমণি করোনেশন ইন্সটিটিউশন – প্রাপ্ত নম্বর ৬৮০

দশম - তামান্না ফিরদৌস, বামনগ্রাম হাইস্কুল – প্রাপ্ত নম্বর ৬৮০



কালিয়াচকের মোজমপুর হাইস্কুলের ছাত্র মহম্মদ রফিকুল হাসানও ৬৮১ নম্বর পেয়ে রাজ্যে নবম স্থান অধিকার করেছে৷ রেশম ব্যবসায়ী বাবর আলির ছয় ছেলেমেয়ের মধ্যে রফিকুল পড়াশোনায় যথেষ্ট ভালো। রফিকুল বেসরকারি একটি কোচিং সেন্টার থেকে পড়াশোনা করত। কালিয়াচকেরই বামনগ্রাম হাইস্কুলের ছাত্রী তামান্না ফিরদৌস ৬৮০ নম্বর পেয়ে দশম স্থান পেয়েছে৷ তবে তাদের বিষয়গত প্রাপ্ত নম্বর এখনও জানা যায়নি৷

হেডলাইন

প্রতিবেদন

কোয়রান্টিন সেন্টারে জন্মদিনের পার্টি, নজির গড়ল দীপান্বিতা

জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বন্ধুদের বাড়িতে ডেকে খাওয়ানো নয়, পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে খাবার বিতরণ করে নজির সৃষ্টি করল ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী। গত...

বিজ্ঞাপন

ফলো করুন
  • Facebook
  • Instagram
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest

সব খবর ইনবক্সে!

প্রতিদিন খবরের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

Aamader Malda Worldwide, the only media of your hometown and its thoughts. Here you can share and express your views and thoughts and you'll get here the essence of MALDAIYA CULT...

You can reach us via email or phone.  P +91 3512-260260  E response@aamadermalda.in

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
  • Instagram
  • RSS

Copyright © 2020 Aamader Malda. All Rights Reserved.