বিজ্ঞাপন

সর্পাহত ছাত্রের মৃত্যু, চিকিত্সায় গাফিলতির অভিযোগ


ফের চিকিত্সায় গাফিলতির অভিযোগ উঠল মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের বিরুদ্ধে। এদিন সকালে সর্পাহত ছাত্রের মৃত্যুর পরেই মেডিক্যাল কলেজের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন মৃতের পরিবারের লোকজন। যদিও মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারী অধ্যক্ষ তথা হাসপাতাল সুপার জানিয়েছেন, এনিয়ে এখনও পর্যন্ত তাঁদের কাছে কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি৷

যুগলটোলা হাইস্কুলে নবম শ্রেণিতে পাঠরত মৃত ছাত্রের নাম জগত মণ্ডল৷ বয়স ১৪ বছর৷ তার মামার বাড়ি কালিয়াচক ২ নম্বর ব্লকের যুগলটোলা গ্রামে৷ পড়াশোনার জন্যই সে মামার বাড়িতে থাকত৷ মামা গৌতম মণ্ডল কৃষিজীবী৷ শ্রমিকের কাজও করেন তিনি৷ মামি রেখা মণ্ডল সাধারণ গৃহবধূ৷ গতকাল মাঝরাতে বিছানায় জগতকে বিষাক্ত সাপ ছোবল দেয়৷


পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, অন্যান্য দিনের মতো সোমবার রাতেও খাবার খেয়ে ঘুমোতে যায় জগত৷ বিছানাতে মশারির নীচে ঘুমিয়েছিল সে৷ কিন্তু সেখানেই যে বিষাক্ত সাপ লুকিয়ে ছিল তা তাঁরা কেউ জানতে পারেননি৷ রাত ২টো নাগাদ সেই বিষাক্ত সাপ পরপর দু’বার জগতকে ছোবল দেয়৷ অন্ধকারে হাত জগত সাপের অস্তিত্ব টের পায়৷ সে সাপটিকে ছুঁড়ে ফেলে দেয়৷ বাড়ির সবাইকে ঘুম থেকে তুলে জানায়, তাকে সাপে কামড়েছে৷ তাঁরাও জগতের পায়ে সাপ কামড়ানোর চিহ্ন দেখতে পান৷ সঙ্গে সঙ্গে গাড়ি করে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় বাঙ্গীটোলা গ্রামীণ হাসপাতালে৷ ৩০ মিনিট সেখানে রাখার পর সেখানকার চিকিৎসক জগতকে মালদা মেডিক্যালে রেফার করে দেন৷ ভোর রাতে তাকে মালদা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়৷ তখনই তাকে একটি ইনজেকশন দেওয়া হয়৷ কিন্তু কাজের কাজ কিছু হয়নি৷ এদিন সকালে মারা যায় জগত৷ গৌতমবাবুর অভিযোগ, মালদা মেডিক্যালে জগতের কোনও চিকিৎসাই করা হয়নি৷ কোনও চিকিৎসকও তাকে দেখতে আসেননি৷ মারা যাওয়ার পর এক চিকিৎসক তাকে দেখতে আসেন৷ তাঁদের সাফ কথা, চিকিৎসার গাফিলতিতেই তাঁর ভাগনের মৃত্যু হয়েছে৷

এপ্রসঙ্গে মালদা মেডিক্যালের সহকারী অধ্যক্ষ তথা হাসপাতাল সুপার অমিত দাঁ বলেন, এব্যাপারে এখনও পর্যন্ত তাঁর কাছে কেউ লিখিত বা মৌখিক অভিযোগ জানাননি৷ তবে মালদা মেডিক্যালে কোনও রোগীকে ভর্তির পর কোনও চিকিৎসক সেই রোগীকে দেখবেন না, এমন কখনও হয় না৷ সম্ভবত সর্পাহত ওই কিশোরকে অনেক দেরি করে হাসপাতালে নিয়ে আসার জন্যই তাকে বাঁচানো যায়নি৷ মালদা জেলার ক্ষেত্রে এটা বড়ো সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ গ্রামীণ হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে অ্যান্টি ভেনাম মজুত রয়েছে৷ মালদা মেডিক্যালেও তার কোনও অভাব নেই ৷ সর্পাহত রোগীকে প্রথমেই সেই ইনজেকশন দেওয়া হলে সেই রোগীকে সহজেই সুস্থ করে তোলা যায়৷ কিন্তু রেফার করা হলে সময় অনেকটা পেরিয়ে যায়৷ সেক্ষেত্রে রোগীকে বাঁচানো সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়৷ তবে এক্ষেত্রে ঠিক কী হয়েছে, তাঁর জানা নেই৷ বিষয়টি তিনি খোঁজখবর নিয়ে দেখছেন৷

প্রতীকী ছবি সৌজন্যে পিক্স অ্যাবে।

#DigitalDesk #Medical

1 view

বিজ্ঞাপন

Valentines-day.jpg
পপুলার

803

1

পরাজিত প্রার্থী পেল জয়ীর কেন্দ্রের টিকিট, বিধানসভা বদল জয়ীর

পরাজিত প্রার্থী পেল জয়ীর কেন্দ্রের টিকিট, বিধানসভা বদল জয়ীর

618

2

নিখোঁজ চার কিশোরের সন্ধান পেল পুলিশ

নিখোঁজ চার কিশোরের সন্ধান পেল পুলিশ

621

3

স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদের উদ্ধার, চাঞ্চল্য ইংরেজবাজারে

স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদের উদ্ধার, চাঞ্চল্য ইংরেজবাজারে

1678

4

মালদায় পা রেখেই বিরোধী শূন্য করার হুঙ্কার ইয়াসিনের

মালদায় পা রেখেই বিরোধী শূন্য করার হুঙ্কার ইয়াসিনের

641

5

নেত্রীর আগেই নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা সাবিত্রীর

নেত্রীর আগেই নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা সাবিত্রীর
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS