বিজ্ঞাপন

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট স্তব্ধ


উপাচার্য ছুটিতে, রেজিস্ট্রার নেই, এমনকি কন্ট্রোলার অফ এগজামিনেশনও নেই৷ তবে এই মুহূর্তে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিভাবক কে? আতশকাচের নীচে ফেললেও এই প্রশ্নের উত্তর মিলবে না৷ গোদের উপর বিষফোঁড়ার মতো গত ৬ নভেম্বর থেকে বন্ধ হয়ে রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট৷ ফলে চরম সমস্যার মুখে পড়ুয়ারা৷ তবে এত নেই-এর মধ্যেও বিতর্ক রয়েছে৷ এবার বেসরকারি কনফিডেন্সিয়াল এজেন্সি নিয়োগ নিয়ে নতুন বিতর্ক উঠেছে৷ যদিও অভিভাবকহীন বিশ্ববিদ্যালয়ে সেই বিতর্কগুলির উত্তর দেওয়ারও কেউ নেই৷


৬ নভেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে, পড়ুয়ারা জানালেন৷ ফলে স্নাতক শ্রেণিতে রেজিস্ট্রেশনের কাজও পুরোপুরি থমকে গিয়েছে৷ থেমে আছে অনলাইন কাউন্সেলিং প্রক্রিয়ার কাজও৷ নিজস্ব ওয়েবসাইট দেখাশোনার জন্য লার্নিং স্পাইরাল নামে একটি বেসরকারি সংস্থাকে দায়িত্ব দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ কিন্তু তারা সঠিকভাবে কাজ করছে না৷ এদিকে গত অগাস্ট মাসে স্নাতক শ্রেণির প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ হওয়ার কথা থাকলেও এখনও তা হয়নি৷ যদিও গত মে মাসে স্নাতক স্তরের তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশিত হয়েছে৷ এসব ঘটনায় ওয়েবসাইট দেখাশোনার কাজে নিযুক্ত সংস্থার গাফিলতিই দেখতে পাচ্ছেন পড়ুয়ারা৷

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নিজস্ব ওয়েবসাইট দেখাশোনার জন্য ২০১৬ সালে লার্নিং স্পাইরাল সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ চুক্তি অনুযায়ী, বছরে ৪ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা ওই সংস্থাকে দিতে হবে বিশ্ববিদ্যালয়কে৷ সংস্থাটি গত বছরের বিল জমা দিলেও এখনও তা পাশ হয়নি৷ এরই মধ্যে ওই সংস্থা চলতি বছরের জন্য আরও ৭০ হাজার টাকার বিল বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিয়েছে৷ প্রশ্ন উঠেছে, দুই বছরের বিলে টাকার পরিমাণে এত ফারাক কেন? সূত্রের খবর, নিজস্ব গোপন কাজ দেখাশোনার জন্য আরও দুটি বেসরকারি কনফিডেন্সিয়াল সংস্থাকে নিয়োগ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ একটি ম্যানেজমেন্ট কনসালটেন্সি, দ্বিতীয়টি বি বি কোম্পানি৷ এই দুটি সংস্থাকেই বেআইনিভাবে নিয়োগ করার অভিযোগ উঠেছে৷ শিক্ষা দপ্তরের নিয়ম অনুযায়ী, কমপক্ষে ১০ বছরের অভিজ্ঞতা না থাকলে কোনও বিশ্ববিদ্যালয়ে এধরনের এজেন্সি নিয়োগ করা যায় না৷ এই দুটি কোম্পানি তাদের সেই অভিজ্ঞতা থাকার দাবি করলেও তার সপক্ষে কোনও প্রমাণ দেখাতে পারেনি৷ অথচ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদেরই ৩ বছরের চুক্তিতে নিয়োগ করেছে৷ এই দুই কোম্পানি সম্প্রতি প্রায় ১ কোটি টাকার বিল বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিয়েছে৷

তাৎপর্যপূর্ণ বিষয়, গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অচলাবস্থার মধ্যেই কোটি টাকার এই বিল মেটাতে তৎপর হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের একাংশ৷ উপাচার্য গত ৭ দিন ধরেই কলকাতায় রয়েছেন৷ এই বিল পাশ করাতে গতকাল রাতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মী উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছেন৷ অবশ্যই বিল সঙ্গে নিয়ে৷ এসব ঘটনা সামনে আসতেই তোলপাড় পড়ে গিয়েছে পড়ুয়া, অভিভাবক ও শিক্ষক মহলের একাংশে৷ এসব নিয়ে পড়ুয়ারাও বড়োসড়ো আন্দোলনে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন৷ তার প্রমাণও মিলেছে৷ গতকালই কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পড়েছে বেনামি পোস্টার৷

প্রতীকী ছবি সৌজন্যে পিক্স অ্যাবে।

#Education #DigitalDesk

4 views

বিজ্ঞাপন

MGH-Advt.jpg
পপুলার
1

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন
2

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে
3

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর
4

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি
5

করোনায় আক্রান্ত রেলকর্মীর মৃত্যু, আতঙ্ক মালদা শহরে

করোনায় আক্রান্ত রেলকর্মীর মৃত্যু, আতঙ্ক মালদা শহরে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
টাটকা আপডেট