বিজ্ঞাপন

নার্সিং হোমে বিনা চিকিৎসায় মৃত কৃষক


এক অসুস্থ রোগীকে ১৪ ঘণ্টা ফেলে রাখা হল। রাত থেকে সকাল পর্যন্ত ওই রোগীকে দেখতে এলেন না কোনও চিকিৎসক। শেষ পর্যন্ত কার্যত বিনা চিকিৎসাতেই মৃত্যু হল ওই রোগীর। এই অভিযোগ উঠেছে মালদা শহরের এক নার্সিং হোমের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ওই নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এদিন ইংরেজবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃত ব্যক্তির পরিবার। যদিও এব্যাপারে নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।


মৃত ব্যক্তির নাম মহন্ত দারিয়া। বয়স ৬৫। বাড়ি হবিবপুর থানার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের আগ্রা হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামে। তিনি পেশায় কৃষক। তাঁর ছেলে রণজিৎ দারিয়ার অভিযোগ, গতকাল দুপুরে চাষ করতে মাঠে যান তাঁর বাবা। সেখানে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। খবর পেয়ে তাঁরা মাঠ থেকে বাবাকে নিয়ে যান স্থানীয় বুলবুলচণ্ডী গ্রামীণ হাসপাতালে। সেখানে তাঁর বাবার চিকিৎসা শুরু হয়। কিন্তু তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হতে শুরু করে। সেখানকার চিকিৎসকরা তাঁর বাবাকে মালদা মেডিকেল কলেজে রেফার করে দেন। কিন্তু সেখানে চিকিৎসা শুরু হতে দেরি হয় জেনে তাঁরা বাবাকে মালদা শহরের মহানন্দা নার্সিং হোমে রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ ভর্তি করেন। প্রথমেই নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষ তাঁদের কাছে ৫ হাজার টাকা দাবি করে। সঙ্গে ওষুধের লম্বা তালিকা ধরিয়ে দেয়। নার্সিং হোম থেকে তাঁদের জানানো হয়, তাঁর বাবার রক্তচাপ সামান্য কম। চিন্তার কিছু নেই। তাঁর কিছু হবে না। রাত বাড়লেও কোনও চিকিৎসক তাঁর বাবাকে না দেখায় তিনি তা নিয়ে প্রশ্ন করেন। তখন তাঁদের জানানো হয়, ভর্তি করার পর রোগীর সমস্ত দায়িত্ব নার্সিং হোমের। তাঁরা যেন এনিয়ে কোনও চিন্তা না করেন। এদিন সকাল ১০টা ২৩ মিনিটে এক চিকিৎসক প্রথমবারের জন্য তাঁর বাবাকে পরীক্ষা করেন। তিনি জানান, তাঁর বাবার অবস্থা খুব খারাপ। তাঁকে আইসিইউ-তে রাখতে হবে। ওই নার্সিং হোমে আইসিইউ না থাকায় তাঁর বাবাকে অন্য একটি নার্সিং হোমে স্থানান্তরিত করা হয়। নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষ তাঁর বাবাকে স্থানান্তরিত করার জন্য একটি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করলেও সেখানে কোনও অক্সিজেনের ব্যবস্থা রাখেনি। সেই অ্যাম্বুলেন্সেই বেলা ১২টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর বাবার।

রণজিতবাবুর আত্মীয় সবরঞ্জন হালদারও এই ঘটনায় নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষকেই দায়ী করেছেন। এদিন সন্ধেয় তাঁরা গোটা ঘটনা জানিয়ে ইংরেজবাজার থানায় মহানন্দা নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করা হচ্ছে। তবে ঘটনা নিয়ে নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি।

#Misc #DigitalDesk

বিজ্ঞাপন

Malda Guinea House.jpg

পপুলার

1

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ

Popular News

577

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ
2

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল

Popular News

699

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল
3

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়

Popular News

1296

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়
4

দোকানে হানা, মাদক বিক্রেতাদের কঠোর বার্তা পুলিশের

Popular News

542

দোকানে হানা, মাদক বিক্রেতাদের কঠোর বার্তা পুলিশের
5

সংক্রমণ রুখতে এবার বন্ধ গোবরজনায় কালীপুজোর মেলা

Popular News

752

সংক্রমণ রুখতে এবার বন্ধ গোবরজনায় কালীপুজোর মেলা
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট
কমেন্ট করুন
 

aamadermalda.in

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS