বিজ্ঞাপন

গৌড়বঙ্গে স্পট কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া আপাতত স্থগিত


জেলা কংগ্রেস সভানেত্রী মৌসম নূরের নেতৃত্বে ছাত্র পরিষদের ব্যানারে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সরাসরি আন্দোলনে নামল কংগ্রেস। একাধিক অভিযোগ এনে আজ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শনের পাশাপাশি উপাচার্যের ঘরে বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ ২৫ দফা দাবিতে এদিন উপাচার্যকে একটি দাবিপত্রও তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে উপস্থিত ছিল ইংরেজবাজার থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী৷


কখনও বেআইনিভাবে অস্থায়ী কর্মী নিয়োগ, কখনও ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রারের কক্ষে তাঁর উপর হামলা, কখনও বা ভারপ্রাপ্ত পরীক্ষা নিয়ামকের স্বৈরতান্ত্রিক আচরণ, একাধিক অভিযোগে বিদ্ধ গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ রয়েছে আর্থিক দুর্নীতি, নির্দিষ্ট সময়ে ফলপ্রকাশ ও ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ না করা সহ আরও একাধিক অভিযোগ৷ শেষ অভিযোগ হল অনলাইনে ভর্তির নিয়ম উপেক্ষা করে স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে ভর্তির জন্য স্পট কাউন্সেলিং প্রক্রিয়ার নোটিশ৷ আজ থেকেই সেই স্পট কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ চলবে আগামীকাল পর্যন্ত৷ যদিও অন্যান্য অভিযোগের মতো এক্ষেত্রেও উপাচার্য গোপালচন্দ্র মিশ্র দাবি করেছেন, এক্ষেত্রেও ভর্তি নিয়ে কোনও নিয়ম ভঙ্গ হয়নি৷ উপাচার্যের এই বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়েছেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের মালদা জেলা সভাপতি প্রসূন রায়ও৷

আজ ছাত্র পরিষদের ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ ও ডেপুটেশন কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ দুপুর ২টো থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস নেতা-কর্মীরা৷ ছিলেন জেলা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক নরেন্দ্রনাথ তিওয়ারি, হেমন্ত শর্মা, বিধায়ক আসিফ মেহবুব, ইশা খান চৌধুরি, সাবিনা ইয়াসমিন সহ জেলা কংগ্রেস সভানেত্রী মৌসম নূরও৷ ছাত্র পরিষদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এহেন কাজকর্মে একদিকে যেমন পড়ুয়াদের পঠনপাঠনে প্রভাব পড়ছে, অন্যদিকে তাঁদের ভবিষ্যতও অন্ধকারে ডুবে যাচ্ছে৷ শুধু তাই নয়, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে দুর্নীতির আখড়া বানিয়ে ফেলেছে৷ কর্তৃপক্ষের টাকা কামানোর জায়গা হয়ে উঠেছে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান৷ এসবের বিরুদ্ধেই মৌসম জানান, প্রয়াত বরকত গণি খান চৌধুরির স্বপ্নের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এটি৷ অথচ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের গাফিলতিতে এই প্রতিষ্ঠানের সুনাম এখন তলানিতে এসে ঠেকেছে৷ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একাধিক প্রশ্ন ওঠা সত্ত্বেও উপাচার্য তাঁর একনায়কতন্ত্র কায়েম রেখেছেন৷ এসব নিয়েই এদিন তাঁরা উপাচার্যকে একাধিক প্রশ্ন করতে চান৷ একাধিক দাবিতে এদিন তাঁরা উপাচার্যকে স্মারকলিপিও দিচ্ছেন৷ এরপরেও বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে কর্তৃপক্ষ নীরব থাকলে তাঁরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবেন৷ কারণ, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের মান অক্ষুন্ন রাখার দায়িত্ব সকলের৷

সন্ধে ৭টায় উপাচার্য কংগ্রেসিদের আন্দোলনের সামনে কার্যত নতিস্বীকার করেন। লিখিত জানান, স্পট কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া স্থগিত করা হচ্ছে।

ছবি সৌজন্যে পিক্স অ্যাবে।

#Education #DigitalDesk

বিজ্ঞাপন

Republic-Day.jpg
পপুলার
1

শহরের জঞ্জাল পরিষ্কার হবে কীভাবে? প্রশ্ন বঙ্গরত্নের

582

শহরের জঞ্জাল পরিষ্কার হবে কীভাবে? প্রশ্ন বঙ্গরত্নের
2

জেলায় দ্বিতীয় বইমেলার প্রস্তুতি শুরু

3031

জেলায় দ্বিতীয় বইমেলার প্রস্তুতি শুরু
3

স্থান বদলে শুরু হল মালদা বইমেলা, চলবে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত

3295

স্থান বদলে শুরু হল মালদা বইমেলা, চলবে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত
4

মালদায় শুরু করোনা টিকাকরণ, প্রথম টিকা পেলেন কৃষ্ণা

634

মালদায় শুরু করোনা টিকাকরণ, প্রথম টিকা পেলেন কৃষ্ণা
5

অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে মালদায় এল করোনা ভ্যাকসিন

1195

অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে মালদায় এল করোনা ভ্যাকসিন
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS