বিজ্ঞাপন

ওঝার কেরামতিতে প্রাণ হারাতে হল যুবককে



ওঝার কেরামতিতে প্রাণ হারাল এক যুবক৷ ঘটনার কথা জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে প্রশাসনিক মহলে৷ বিষয়টি খোঁজ নিয়ে উপযুক্ত তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন বিডিও৷ বিগত সোমবারের এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে দুদিন পর সামনে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদার যাত্রাডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েতের হালনা মহম্মদপুর গ্রামে৷

মহম্মদপুরের দীর্ঘদিনের বাসিন্দা আসাদুল্লা শেখ৷ বয়স ৩০ বছর। পেশায় দিনমজুর৷ বাড়িতে রয়েছেন বাবা মহম্মদ কেরামন আলি, মা আসমাউন বিবি, স্ত্রী লাকি বিবি ও তাঁর তিন ছেলেমেয়ে৷ স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আসাদুল্লা গত রবিবার হঠাৎ পড়ে যান৷ তারপর থেকে তাঁর বাম হাত ও পা অসাড় হয়ে যায়৷ স্বামীর এই অবস্থা দেখে লাকি বিবি আসাদুল্লাকে সরকারি হাসপাতালের পরিবর্তে নিয়ে যান তাঁর বাবার বাড়ি গাজোলের দেওতলায়৷ সেখানে এক গুণিনের কাছে স্বামীর চিকিৎসা করান তিনি৷ পরদিন ফের আসাদুল্লাকে নিয়ে তিনি মহম্মদপুরে ফিরে আসেন৷ এবার স্বামীর চিকিৎসার জন্য ফজলু রহমান নামে স্থানীয় এক গুণিনের সাহায্য নেন তিনি। সোমবার বেলা ৩টে নাগাদ ফজলু আসাদুল্লাদের বাড়িতে আসে৷ শুরু হয় ঝাড়ফুঁকের নামে অত্যাচার৷ অসুস্থ আসাদুল্লার শরীরে ভূত ঢুকেছে এই বলে সে আসাদুল্লাকে বেধড়ক মারধর করতে শুরু করে৷ অসুস্থ শরীরে একসময় নেতিয়ে পড়েন তিনি৷ সন্ধে ৬টা নাগাদ সেখান থেকে চলে যায় ফজলু৷ এদিকে ধীরে ধীরে আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন আসাদুল্লা৷ শেষ পর্যন্ত রাত ৮টা নাগাদ তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মালদা মেডিকেল কলেজে৷ তবে শেষ রক্ষা হয়নি৷ মঙ্গলবার সকালে মারা যান তিনি৷ যদিও এই ঘটনায় পুলিশে কোনও অভিযোগ না করে মৃতদেহ বাড়িতে ফিরিয়ে এনে আসাদুল্লাকে সমাধিস্থ করে দেন পরিবারের সদস্যরা৷

ফজলু গুণিনের কেরামতি নিজের মোবাইল ফোনে তুলে রাখেন ওই গ্রামেরই এক বাসিন্দা৷ বুধবার তা সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন তিনি৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট ঘিরে চরম উত্তেজনা ছড়ায়। আসাদুল্লার বাবা বলেন, ‘ছেলেটার হঠাৎ যে কী হল! অসুস্থ হতেই ওর বউ তাকে নিয়ে চলে গেল বাবার বাড়িতে৷ সেখানে ওঝার কাছে ছেলেটার চিকিৎসা করাল৷ সেখানকার ওঝার কাছে চিকিৎসা করিয়ে অসুখ আরও বেড়ে যায়৷ ওকে নাকি ভূত ধরেছে৷ আবার এখানকার ওঝাকে ডেকে আনল ওর বউ। এই ওঝাও বলল, আসাদুল্লাকে ভূত ধরেছে৷ মেরে মেরে ভূত ছোটাতে হবে৷ না মারলে বলে ভূত কথা শুনবে না৷ একথা বলে ওঝা আসাদুল্লাকে মারধর শুরু করে৷ তাতে ছেলে আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে৷ অবশেষে রাতে ছেলেকে নিয়ে হাসপাতালে যাই৷ কিন্তু সে মারা যায়৷’

মহম্মদপুর গ্রামের এমন ঘটনায় যথেষ্ট বিব্রত স্থানীয় তৃণমূলি পঞ্চায়েত সদস্য জিসান আলি৷ তিনি বলেন, ওঝার কেরামতিতে একজনের মৃত্যুর খবর গতকাল তিনি শুনেছেন৷ অত্যন্ত নিন্দনীয় একটি ঘটনা৷ তাঁরা আগে বিষয়টি জানতেন না৷ জানলে আগে থেকেই ব্যবস্থা নিতেন৷ ভবিষ্যতে যাতে এধরনের ঘটনা না ঘটে তার দিকে তাঁরা নজর রাখবেন৷ এনিয়ে তাঁরা গ্রামবাসীদের সচেতন করবেন৷ এপ্রসঙ্গে পুরাতন মালদার বিডিও নরোত্তম বিশ্বাস বলেন, তিনিও ঘটনাটি শুনেছেন৷ তাঁরা গোটা বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছেন৷ যে ওঝার কেরামতিতে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে সেই ওঝার বিরুদ্ধে কড়া আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে৷ ভবিষ্যতে এমন ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য ওই এলাকায় সচেতনতা প্রচারও চালানো হবে৷

ওই গ্রামের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার আসাদুল্লার মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরেই গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে ফজলু৷

#DigitalDesk #Video #Misc

বিজ্ঞাপন

Malda Guinea House.jpg

পপুলার

1

গ্রেফতার সাত ডাকাত, উদ্ধার হাঁসুয়া, লোহার রড

Popular News

610

গ্রেফতার সাত ডাকাত, উদ্ধার হাঁসুয়া, লোহার রড
2

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ

Popular News

619

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ
3

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল

Popular News

701

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল
4

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়

Popular News

1300

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়
5

দোকানে হানা, মাদক বিক্রেতাদের কঠোর বার্তা পুলিশের

Popular News

546

দোকানে হানা, মাদক বিক্রেতাদের কঠোর বার্তা পুলিশের
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট
কমেন্ট করুন
 

aamadermalda.in

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS