বিজ্ঞাপন

আলিপুর সংশোধনাগারে রহস্যজনক মৃত্যু বন্দীর

আলিপুর সংশোধনাগারে থাকা এক বন্দির মৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদায়৷ মৃত ওই বন্দির নাম বুদ্ধু সাহা৷ বয়স ৭৩৷ বাড়ি পুরাতন মালদার মাধাইপুর সংলগ্ন দক্ষিণ ভাটরা এলাকায়৷ টাকার অভাবে বৃদ্ধের মৃতদেহ বাড়িতে ফিরিয়ে আনার জন্য সাহায্য চাইছে তাঁর পরিবারের সদস্যরা৷ এই ঘটনা নিয়ে প্রশ্নও উঠতে শুরু করেছে এলাকায়৷ এই ঘটনায় রহস্যের গন্ধ পাচ্ছে পরিবারের লোকজনও৷


বয়সকালে বুদ্ধু সাহা শ্রমিকের কাজ করতেন৷ শেষ বয়সে ভিক্ষাবৃত্তির সম্বল ছিল তাঁর৷ বাড়িতে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী ঊষা সাহা৷ একমাত্র মেয়ে কাঞ্চন সাহার বিয়ে হয়েছে অনেকদিন আগেই৷ প্রায় এক বছর আগে বুদ্ধুবাবুর বিরুদ্ধে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয় পুলিশে৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁকে গ্রেফতার করে মালদা থানার পুলিশ৷ কিন্তু অর্থের অভাবে তাঁর সপক্ষে কোনও আইনজীবী নিয়োগ করতে পারেননি তাঁর পরিবারের লোকজন৷ শেষে বুদ্ধুবাবুর ঠাঁই হয় মালদা জেলা সংশোধনাগারে৷ মাঝেমধ্যে তাঁকে আদালতে তোলা হচ্ছিল৷ আদালতে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখাও করতেন তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে৷ মা ও মেয়ের বক্তব্য, গতকাল রাত ১২টা নাগাদ মালদা থানার পুলিশ বাড়িতে এসে জানায়, আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে থাকাকালীন বুদ্ধুবাবু অসুস্থ হন৷ তাঁকে বাঙ্গুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর৷ তাঁর মৃতদেহ যেন বাড়িতে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেন পরিবারের লোকজন৷

কিন্তু অর্থের অভাবে যে অভিযুক্তের সপক্ষে আইনজীবীই নিয়োগ করতে পারেননি পরিবারের লোকজন, তাঁর মৃতদেহ কলকাতা থেকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনবেন কী করে ? এদিন সকালে ঊষাদেবী জানান, ‘কী করে স্বামীর মৃতদেহ ফিরিয়ে আনব বুঝতে পারছি না৷ আমি কিছু চাই না৷ শুধু স্বামীর দেহ ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করে দাও৷’ কাঞ্চনদেবীর প্রশ্ন, গত ১৬ তারিখই জেলা আদালতে বাবার সঙ্গে দেখা করেছিলেন তিনি৷ সেই সময় সুস্থ ছিলেন তাঁর বাবা৷ কখন যে তাঁকে কলকাতার আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে পাঠানো হয়েছে তা তাঁরা জানেন না৷ পুলিশ কিংবা জেলা সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষও সেবিষয়ে তাঁদের কিছু জানায়নি৷ গতকাল রাত ১২টা নাগাদ মালদা থানার পুলিশ এসে বাবার মৃত্যু সংবাদ দেয় তাঁদের৷ বাবার দেহ ফিরিয়ে আনতে বলে পুলিশ৷ কিন্তু তাঁরা পুলিশকে জানিয়ে দিয়েছেন, বাবার দেহ ঘরে ফিরিয়ে আনার টাকা নেই তাঁদের৷ এই অবস্থায় তাঁরা বাবার দেহ ফিরিয়ে আনার জন্য সবার সাহায্য চাইছেন৷

গোটা ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছেন এলাকার আরএসপি নেতা সর্বানন্দ পাণ্ডে৷ তিনি বলেন, গতকাল রাতে পুলিশ খবর দিয়েছে, বুদ্ধু সাহা আলিপুর জেলে মারা গিয়েছে৷ কিন্তু তাঁকে কখন মালদা জেলা সংশোধনাগার থেকে সেখানে নিয়ে যাওয়া হল, তাঁর কী অসুখ হয়েছিল, সেসব কিছু জানায়নি পুলিশ৷ শুধু বলছে, মৃতদেহ ফিরিয়ে আনতে হবে৷ অর্থের অভাবে যাকে জামিন করানো যায়নি, তার মৃতদেহ পরিবারের লোকজন কীভাবে ফিরিয়ে আনবে৷ এনিয়ে মালদা জেলার সংশোধনাগারের জেলারের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি৷ জেলার বলছেন, আপনারা টাকা জোগাড় করে দিন৷ বুদ্ধু সাহা কীভাবে মারা গিয়েছেন, তাও জানানো হচ্ছে না৷ তাঁদের দাবি, বুদ্ধুবাবুর দেহ মালদা সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষকেই ফিরিয়ে আনতে হবে৷ কারণ, মালদা জেলা সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষই তাঁকে আলিপুর পাঠিয়েছিল৷ তাঁর মৃত্যুর কারণও পরিবারের সদস্যদের জানাতে হবে৷ এই ঘটনায় মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়েছে বলে দাবি করেছেন সর্বানন্দবাবু৷

#DigitalDesk #Misc

বিজ্ঞাপন

Malda Guinea House.jpg

পপুলার

1

শীতের বনভোজনে ইংরেজবাজারে নিষেধাজ্ঞা পুলিশের

Popular News

784

শীতের বনভোজনে ইংরেজবাজারে নিষেধাজ্ঞা পুলিশের
2

গ্রেফতার সাত ডাকাত, উদ্ধার হাঁসুয়া, লোহার রড

Popular News

677

গ্রেফতার সাত ডাকাত, উদ্ধার হাঁসুয়া, লোহার রড
3

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ

Popular News

624

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ
4

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল

Popular News

702

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল
5

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়

Popular News

1306

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট
কমেন্ট করুন
 

aamadermalda.in

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS