top of page

ভোটার তালিকায় 'মৃত', কার্ড হাতে বিক্ষোভ ভোটারদের

খাতায় কলমে মৃত। অথচ রীতিমতো ঘুরে বেড়াচ্ছেন তাঁরা। শুধু তাই নয়, ভোটার তালিকায় তাঁদের নাম মৃতের তালিকায় ঢুকিয়ে দেওয়ায় প্রকাশ্যে বিক্ষোভও দেখাচ্ছেন। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কালিয়াচক-৩ নম্বর ব্লকের গোলাপগঞ্জ গ্রামপঞ্চায়েতের শ্মশানি গ্রামে৷ পঞ্চায়েত ভোটের আগে ভোটার তালিকায় গড়মিলের অভিযোগ নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।


জানা গিয়েছে, কালিয়াচক-৩ নম্বর ব্লকের গোলাপগঞ্জ গ্রামপঞ্চায়েতের শ্মশানি গ্রামের ৭৪ ও ৭৫ নম্বর বুথে পাঁচজনকে মৃত ঘোষণা করে মৃতের তালিকায় তাঁদের নাম ফেলে দেওয়া হয়েছে। এমনকি ওই দুটি বুথের আরও ৪৪জন ভোটারকে মৃত ঘোষণা করে ভোটার তালিকা সংশোধনের আবেদনও অনলাইনে জমা পড়েছে। বিষয়টি জানতে পেরেই ক্ষোভ ফেটে পড়েছেন ওই ভোটাররা। বিডিওর অফিসে গিয়ে ইতিমধ্যে বিক্ষোভও প্রদর্শন করেছেন ওই ভোটাররা। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বিডিও।


Dead in voter list protesting with cards
পঞ্চায়েত ভোটের আগে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছেন স্থানীয়রা

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, গোলাপগঞ্জ গ্রামপঞ্চায়েতের ৭৫ নম্বর বুথের পাঁচজনকে মৃত দেখিয়ে ভোটার তালিকা থেকে তাঁদের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয় ফর্ম জমা দিয়ে দুটি বুথের ৪৪ জনকে মৃত ঘোষণা করে ভোটার তালিকা থেকে নাম বাদ দেওয়ার আবেদনও কেউ বা কারা জানিয়েছেন। পুরো ঘটনাকে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র মনে করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ভোটারের চূড়ান্ত লিস্টে এই ভোটারদের নাম না থাকলে ভোট বয়কট করার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।


দায়িত্বপ্রাপ্ত বিএলও মোহম্মদ জাহাঙ্গির আলম জানান,

"সরকারি অ্যাপ থেকে তিনি বিষয়টি জানতে পেরেছেন। ইলেকশন সেলে ফোন করে তিনি জানতে পারেন, বেশ কয়েকজনকে মৃত বলে ভোটার তালিকা সংশোধনের আবেদন করা হয়েছে। সেই প্রক্রিয়াও নাকি শুরু হয়েছে। অথচ ওই ভোটাররা সকলেই জীবিত। ওই ভোটাররা বিষয়টি জানতে পেরে বিডিওর সঙ্গে দেখা করেছেন। এই ঘটনার পেছনে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রও থাকতে পারে"

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Commentaires


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page