বিজ্ঞাপন

হালকা সবুজ গোলাকৃতি, চাহিদা বাড়ছে মতিহারপুরের ছোটো বেগুনের

মতিহারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেগুনের চাহিদা বাড়ছে দিনদিন। অধিক লাভজনক হওয়ায় মালদার চাঁচল ১ ব্লকের কৃষকরাও বেগুন চাষে উৎসাহিত হয়ে উঠেছেন। হালকা সবুজ রঙের এই বেগুন দেখতে গোলাকৃতির। সাইজে ছোটো সুস্বাদু এই বেগুন বাজারে এলেই নিমেষে সাবাড় হয়ে যায়। ফলে সবজি বিক্রেতাদের আগ্রহ বেশি এই বেগুনে।


চাহিদা বাড়ছে মতিহারপুরের ছোটো বেগুনের

জানা গিয়েছে, বোরো ধান চাষ করার পর আমন চাষের চিন্তা না করে বেগুন চাষের জন্য জমি প্রস্তুতি শুরু করেছিলেন কৃষকেরা। বেগুন চাষের পর আবার তারা মনযোগ দেন বোরো ধান চাষের প্রতি। বেগুন চাষের পর বোরো চাষের ক্ষেত্রে কৃষকদের দুটি লাভ হয়। বোরো ধানের জন্য জমিতে চাষের কাজ কম করতে হয়। কার্যত দ্বিফসলী মাঠে পলি মিশ্রিত দোঁয়াশ মাটিতে অল্প রাসায়নিক সার ব্যবহার করলেই ভালো ফসল হয় বলে জানান কৃষকরা। ফলে বোরো চাষের উৎপাদন খরচও কম পড়ে।


বেগুন চাষ করে প্রতি বিঘায় লক্ষাধিক টাকা আয় করা সম্ভব হচ্ছে

সন্তোষপুর গ্রামের ফিরোজ আলম ১০ কাঠা জমিতে ১৫ বছর থেকে বেগুন (#MotiharpurBrinjal) চাষ করছেন। তিনি জানান, বেগুন চাষে সার ও শ্রমিক খরচও অনেক কম। তুলনামুলকভাবে বাজারে বিক্রি করে বেশ ভালোই দাম পাওয়া যাচ্ছে। এক বিঘা জমিতে বেগুন চাষ করতে সর্বোচ্চ খরচ পড়ে ১৫ হাজার টাকা। সেখানে পুরো মৌসুমে ১ বিঘা জমি থেকে বেগুন পাচ্ছেন প্রায় ১৫০-২০০ মন। অর্থাৎ বেগুন চাষ করে প্রতি বিঘায় লক্ষাধিক টাকা আয় করা সম্ভব হচ্ছে। কৃষিদপ্তর থেকেও কৃষকদের নানাভাবে সাহায্য করা হচ্ছে।



মালদা জেলাপরিষদের কৃষি সেচ ও সমবায় দপ্তরের কর্মাধ্যক্ষ রফিকুল হোসেন জানান, চাঁচল মহকুমার মধ্যে মতিহারপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা সবজি চাষের জন্য বিখ্যাত। এই এলাকার সবজি জেলার চাহিদা মিটিয়ে বাইরের জেলাতেও রপ্তানি হয়।

557 views

বিজ্ঞাপন

MGH.jpg
পপুলার
1

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে মালদায় মৃত ১৬

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে মালদায় মৃত ১৬
2

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন

চোরাই মোবাইল পাচারচক্রের হদিশ, ধৃত তিন
3

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে

সরানো হল মালদা সদর মহকুমাশাসককে
4

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর

কেন ইংলিশবাজার? নাম পরিবর্তনের ইচ্ছে বিজেপি প্রার্থীর
5

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি

ইংরেজবাজারে উদ্ধার মানুষের মাথার খুলি
Earnbounty_300_250_0208.jpg