বিজ্ঞাপন

মুন্নাভাই-এর মতো ইউনাইটেড ব্যাংকও গান্ধিগিরির পথে

মুন্নাভাই-এর গান্ধিগিরি... বলিউড প্রেমী প্রত্যেকেরই জানা। সেই পথই অবলম্বন করছে ইউনাইটেড ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া৷ বকেয়া ঋণ আদায় করতে গান্ধিগিরির রাস্তায় হাঁটছে ইউবিআই। তাতে সাফল্যও আসতে শুরু করেছে৷ ইতিমধ্যে দুজন ব্যাবসায়ী ব্যাংক থেকে নেওয়া ঋণ শোধ করার আশ্বাস দিয়েছেন৷ ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শুধু মালদা নয়, বকেয়া ঋণ আদায়ে এই গান্ধিগিরি দুই দিনাজপুরেও চালানো হবে৷



ইউনাউটেড ব্যাংকের মালদা রিজিওনাল অফিসের আওতায় মালদা সহ উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় প্রচুর শাখা রয়েছে৷ ব্যাংক সূত্রে জানা গিয়েছে, এই মুহূর্তে ৩ জেলায় অনাদায়ী ঋণের পরিমাণ ১৩০ কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে৷ তার প্রভাব পড়েছে ব্যাংকের লেনদেনের উপরেও৷ গ্রাহকদের টাকা মেটাতে ব্যাংককে ঋণ নিতে হচ্ছে৷ তার পরিমাণও আকাশ ছুঁয়েছে৷ ব্যাংকের সিনিয়র রিজিওনাল ম্যানেজার অমরেন্দ্রকুমার রায় জানিয়েছেন, বহু ব্যবসায়ী আর্থিক সঙ্গতি থাকা সত্বেও ব্যাংকের ঋণ মেটাচ্ছেন না৷ ঋণ পরিশোধের জন্য তাঁদের একাধিকবার নোটিশ দেওয়া হয়েছে৷ কিন্তু কোনো ফল হয়নি। তাঁরা এইসব বড়ো ব্যবসায়ীর একটি তালিকা তৈরি করেছেন৷ তিন জেলা মিলিয়ে সেই তালিকায় ৩১ জন ব্যবসায়ীর নাম রয়েছে৷ তাঁদের কাছে ঋণের অর্থ পরিশোধের জন্য তাঁরা বিশেষ একটি পন্থা অবলম্বন করেছেন ৷ তাঁরা তার নাম দিয়েছেন সাইলেন্ট ডেমনেস্টেশন ৷ বৃহস্পতিবার থেকেই সেই ডেমনেস্টশন শুরু হয়েছে ৷



কী সেই পদ্ধতি? ব্যাংকের এক কর্তা জানালেন, তালিকায় নাম থাকা ব্যবসায়ীদের বাড়ির সামনে ওই এলাকার ব্রাঞ্চ ম্যানেজার সহ ব্যাংকের সার্কেল অফিসের কর্তারা হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়াচ্ছেন৷ প্ল্যাকার্ডে বকেয়া ঋণ পরিশোধের আবেদন জানানো হচ্ছে৷ তাতে কাজও হচ্ছে৷ স্থানীয় মানুষজন ব্যাংককর্মীদের এভাবে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে ভিড় জমাচ্ছেন৷ সবাই এর কারণ জানতে চাইছেন৷ ব্যাংককর্মীরাও গোটা বিষয়টি মানুষজনকে জানাচ্ছেন৷ এতে ব্যাবসায়ীদের সামাজিক সম্মান প্রশ্নের মুখে দাঁড়াচ্ছে৷ তাঁরা ঋণ শোধ দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন৷ তবে শুধু প্রতিশ্রুতি দিলেই হবে না, ঋণ পরিশোধ না করা পর্যন্ত তাঁরা এই কর্মসূচি চালিয়ে যাবেন৷

বৃহস্পতিবারই এই পদ্ধতি বাস্তবায়িত করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ৷ সেদিন পুরাতন মালদার দুজন নামজাদা ব্যবসায়ীর বাড়ির সামনে ব্যাংককর্মীরা হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন৷ এদিন সকালেও পুরাতন মালদার আরও দুই ব্যবসায়ীর বাড়ির সামনে দাঁড়ান তাঁরা৷ ভিড় জমে যাওয়ায় শশব্যস্ত হয়ে ব্যাংককর্মীদের সঙ্গে কথা বলতে আসেন দুই ব্যবসায়ীই৷ আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তাঁরা নিজেদের ঋণ পরিশোধের আশ্বাস দেন৷ অমরেন্দ্রবাবু জানিয়েছেন, তাঁরা সবার কাছে আবেদন জানাচ্ছেন, প্রয়োজনে ঋণ গ্রহণ করুন সবাই৷ কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে সেই ঋণ পরিশোধ করুন৷ সেক্ষেত্রে প্রয়োজনে ফের ঋণ গ্রহণ করতে পারেন সকলেই৷


#OldMalda

বিজ্ঞাপন

Malda Guinea House.jpg

পপুলার

1

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ

Popular News

614

মানিকচকে গঙ্গায় ডুবল ভেসেল, সার্চলাইট জ্বালিয়ে খোঁজ
2

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল

Popular News

700

সুজাপুরে বিস্ফোরণস্থলে এলেন ফিরহাদ হাকিম, আসছে ফরেনসিক দল
3

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়

Popular News

1298

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়
4

দোকানে হানা, মাদক বিক্রেতাদের কঠোর বার্তা পুলিশের

Popular News

544

দোকানে হানা, মাদক বিক্রেতাদের কঠোর বার্তা পুলিশের
5

সংক্রমণ রুখতে এবার বন্ধ গোবরজনায় কালীপুজোর মেলা

Popular News

755

সংক্রমণ রুখতে এবার বন্ধ গোবরজনায় কালীপুজোর মেলা
Earnbounty_300_250_0208.jpg
At the Grocery Shop
টাটকা আপডেট
কমেন্ট করুন
 

aamadermalda.in

সাবস্ক্রিপশন

স্বত্ব © ২০২০ আমাদের মালদা

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube
  • Pinterest
  • RSS