বঙ্গবিদ্রুপ

বঙ্গবিদ্রুপ



বঙ্গবিদ্রুপ

ঊনবিংশ শতাব্দীর মধ্যভাগে সামান্য ইংরেজি শেখা মধ্যবিত্ত বাঙালিবাবু নিজেদের কেউকেটা ভাবতে শুরু করল আর সমস্ত ওড়িয়াদের উড়ে, বিহারিদের খোট্টা মাড়োয়ারিদের মেড়ো বা মাওড়া আর পাঞ্জাবিদের পাঁইয়া ইত্যাদি নামে ডেকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করতে লাগল। যেন ওই মানুষগুলোর আলাদা নাম নেই অথচ বাঙালি নিজের নাম নিয়ে যে পরিমাণ ঘাম ঝরিয়েছে মানে যত ভাবনাচিন্তা করেছে, বইপত্র, পাঁজি, পুঁথি, পুরাণ, উপনিষদ, রামায়ণ, মহাভারত ঘেঁটেছে পৃথিবীতে, অন্য কোনো জাতি বা জনগোষ্ঠী তেমন করেছে বলে এই কলমচির জানা নেই।

ওদেশে ৬০০ বছর আগে লেয়নার্দো ছিল 'দা ভিন্‌চি' হিসেবে, সেই লেয়নার্দো আজও আছে 'ডি ক্যাপ্রিয়ো' বেশে। ৪০০ বছর আগের 'উইলিয়াম' বা 'আইজ্যাক' রাও দিব্যি টিকে আছে ঝাঁ চকচকে আধুনিক তরুণ হিসেবে... তরুণীদের ক্ষেত্রেও পাওয়া যাবে এমন হাজারো উদাহরণ। মধ্যপ্রাচ্য, সিন্ধু, মালয়, আফ্রিকা, চিন, জাপান সর্বত্র নামের তেমন কোনো বিবর্তন নেই, নেই নামের আধুনিকতা বা উত্তর আধুনিকতা। একশো, দুশো, তিনশো বছরের পুরোনো নাম দিব্যি টিকে আছে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে, দর্শনটা সহজ, নামে কিই বা আসে যায়। গোলাপকে যে নামেই ডাকো তার গন্ধ একই থাকবে কিন্তু বাঙালি ব্যতিক্রম। সে কানা ছেলের নামও পদ্মলোচন রাখবে তবে বাঙালির নামের বিবর্তনে পদ্মলোচনও কবেই বিলুপ্ত হয়েছে যেমন বাঙালি আজকাল আর রাম নাম করে না... না না কথাটা একদমই রাজনৈতিক নয় মানে রামমোহন, রামহরি, রামজয়, রাজারাম, রামমণি, কাশীরাম এমনকি রামধনু ইত্যাদি নামগুলো আমরা খারিজ করে দিয়েছি প্রায় এক শতাব্দী আগেই, পরবর্তী যুগের বঙ্কিম, মধুসূদন, বিবেকানন্দ এই নামগুলো নিয়ে বাংলার রাজপথে হাঁটবে কি কোনো বাঙালি সন্তান? সারাদিন রাত আঁকড়ে থাকব রবীন্দ্রনাথ কিন্তু একমাত্র পুত্রের নাম? আপাতত শহুরে বাঙালির ক্ষেত্রে অসম্ভব। গত শতাব্দীর দুর্গাবতী, সৌদামিনী, বিম্ববতী, ভগবতী, বিধুমুখীদের পরিবর্তে চল্লিশ, পঞ্চাশ ষাটের দশকের জয়া, রমা, তপতী, সন্ধ্যারাও ঠাকুমা-দিদিমা হয়ে গেছেন যেমন দাদু-ঠাকুরদা হয়ে গেছেন সুনীল, শক্তি, অমল, বিমল, তপনরাও তাদের নাতি-নাতনিদের নাম ঐশ্বরিক, সায়র, মধুজা বা অলিভিয়া।

বাঙালি নাম খুঁজেছে নদীর মধ্যে যেমন গঙ্গা, যমুনা, পদ্মা, মেঘনা, শিপ্রা, কাবেরি হয়ে আধুনিক তিস্তা, সুবর্ণরেখা, ধানসিঁড়ি কী রূপসা। তবে গোদাবরী নামটা তেমন কেউ রাখেনি সেকি 'গোদা' শব্দটা তেমন কাব্যিক নয় বলে? এ প্রশ্ন আমার বহুদিনের কিংবা বিদিশা, শ্রাবন্তি, উজ্জয়িনি, লিচ্ছবি সব নামের শহরই বৌদ্ধ বা গুপ্তযুগের কেন? নাম হিসেবে নালন্দাও দারুণ শৈল্পিক কিন্তু এই জায়গাগুলো সবই বিহার বা মধ্যপ্রদেশের, আমাদের দুই বাংলার কোনো জায়গা কেন নাম হিসাবে উঠে আসল না? আমি আজকের এক যুবতীকে চিনি তার নাম আর্জেন্টিনা ডাকনাম টিনা, জন্ম অবশ্যই ১৯৮৬ সাল। বলিভিয়া-কলম্বিয়া দুই বোনকেও চিনি আমি। পাবলোকেও চিনি আমি তবে সেই নাম পিকাসোকে মনে রেখে না নেরুদাকে তা জানি না!

লাল-নীল-সবুজ শুভ্র বা কৃষ্ণ-গোলাপি বা ফিরোজা সব রঙ্গেই রাঙ্গিয়েছি আমাদের নাম কিন্তু গেরুয়াটা বাদ পরে গেছে নাকি কমলায় মিশে গেছে? আজ থেকে পঞ্চাশ-একশো বছর পর কেমন হবে আমাদের সন্তান সন্ততিদের নাম? প্রশ্নগুলো সহজ কিন্তু উত্তরও কি সোজা?

এতো বৈচিত্র্যময় বঙ্গের নাম রঙ্গের মধ্যে অবাক হয়েছিলাম। এই জেলার এক আদিবাসী গ্রামে, বছর দশেক আগে পরিচয় হয়েছিল মধ্য চল্লিশের সেই যুবকের সাথে নাম বলেছিল 'জ্যোতি বসু টুডু' ওর জন্মের দিন জ্যোতি বসু এসেছিলেন ওই অঞ্চলে তাই বাবা রেখেছিলেন অমন নাম!

বাঙালির নতুন বছরের শুরুতেই বাঙালির অতি প্রিয় নাম নিয়ে এমন ব্যঙ্গ বিদ্রুপ নাকি বঙ্গ বিদ্রুপ। আশাকরি আমার বাকি লেখাগুলোর মতই এটাও পাঠক তেমন পাত্তা দেবে না। আর এই প্রসঙ্গে মনে পড়ল 'পাঠক মিত্র' - শিলিগুড়ি বয়েজ হাইস্কুলে আমার এক সহপাঠীর নাম!

অলংকরণঃ মৃণাল শীল


#DebrajRoychaudhuri #MrinalSeal #Cartoon #Misc #Malda

হেডলাইন

প্রতিবেদন

মহানন্দার উজান স্রোতে ভবানীপুরে অশনির ঘণ্টা বাজছে

ফি বছর বর্ষায় বেড়ে যায় মহানন্দার জলস্তর। স্রোতের আওয়াজ ঘুমন্ত গ্রামবাসীদের কানের পর্দায় যেন ধাক্কা দেয়৷ এবারও বেড়েছে মহানন্দার জল৷ খানিকটা..

বিজ্ঞাপন

ফলো করুন
  • Facebook
  • Instagram
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest

সব খবর ইনবক্সে!

প্রতিদিন খবরের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

Aamader Malda Worldwide, the only media of your hometown and its thoughts. Here you can share and express your views and thoughts and you'll get here the essence of MALDAIYA CULT...

You can reach us via email or phone.  P +91 3512-260260  E response@aamadermalda.in

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
  • Instagram
  • RSS

Copyright © 2020 Aamader Malda. All Rights Reserved.