বিজ্ঞাপন

শৌচাগারে বন্দি গাঙ্গুরিয়া মিশনের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থিনী

সোমবার থেকে সারা রাজ্যে শুরু হয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। পরীক্ষা নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে প্রশাসনের তরফ থেকে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, বিশেষ করে পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে রাখা হয়েছে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা। অথচ প্রশাসনের নাকের নীচে এত নিরাপত্তার মধ্যেই বামনগোলা পরীক্ষাকেন্দ্রের শৌচাগারে এক ছাত্রী বন্দি অবস্থায় উদ্ধার করল পরীক্ষাকেন্দ্রে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিভিক ভলান্টিয়াররা। হাসপাতাল থেকেই আজ বাংলা পরীক্ষা দেয় ওই ছাত্রী। তবে এই ঘটনায় এখনো পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়নি। গোটা ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বামনগোলায়।



বামনগোলার আদাডাঙা গ্রামের দশম শ্রেণির ছাত্রী নিবেদিতা বিশ্বাস। স্থানীয় গাঙ্গুরিয়া ছাতিয়া রামকৃষ্ণ মিশনের ছাত্রী। পরীক্ষার সিট পড়েছিল বামনগোলা হাইস্কুলে। নির্দিষ্ট সময়েই আজ সে পরীক্ষাকেন্দ্রে গিয়েছিল। বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে, পরীক্ষা শুরুর দশ-পনেরো মিনিট আগে সে শৌচাগারে গিয়েছিল। সেখানেই তার উপর হামলা চালায় কেউ বা কারা। ওই ছাত্রীর চিৎকারে শৌচাগারে ছুটে যান স্কুলকর্মী সহ নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিভিক ভলান্টিয়াররা। দেখা যায়, ওড়না দিয়ে হাত ও চোখ বাঁধা অবস্থায় মেঝেতে পড়ে রয়েছে ওই ছাত্রী। সঙ্গে সঙ্গে অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বামনগোলা গ্রামীণ হাসপাতালে। চিকিৎসকরা জানান, নিবেদিতার হাত-পা ভাঙেনি। তবে মচকে গিয়েছে। সম্ভবত তার হাত-পা মুচড়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল।

পরের খবরঃ মাধ্যমিকে ইংরেজি পরীক্ষা দিতে পারল না আক্রান্ত নিবেদিতা

এদিকে স্কুল কর্তৃপক্ষ গোটা বিষয়টি জেলা মাধ্যমিক স্কুল পরিদর্শককে জানায়৷ সঙ্গে সঙ্গে নিবেদিতার পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়৷ জেলা মাধ্যমিক স্কুল পরিদর্শক তাপসকুমার বিশ্বাস জানান, ঘটনাটি জানার সঙ্গে সঙ্গে বামনগোলা গ্রামীণ হাসপাতালে দুজন শিক্ষিকাকে পাঠানো হয়েছে৷ ব্যবস্থা করা হয়েছে রাইটারের৷ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই সে পরীক্ষা দিচ্ছে৷

নিবেদিতার মা তাপসীদেবী জানান, হাসপাতালে যাওয়ার পথে মেয়ে জানায়, পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণ আগে সে বাথরুমে গিয়েছিল। সেখানেই কেউ বা কারা তার হাত-মুখ চেপে ধরেছিল। বাধা দিতে গেলে তারা তার হাত-পা মুচড়ে দেয়। বেঁধে দেয় হাত-চোখ। প্রাণের ভয়ে সে চিৎকার করতে শুরু করে।

ছবিঃ কৃতাঙ্ক


টপিকঃ #মাধ্যমিক

74 views

বিজ্ঞাপন

MGH.jpg
পপুলার
1

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী
2

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল
3

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ
4

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি
5

পরীক্ষায় প্রতিদিন প্রায় ৫০ শতাংশ পজিটিভ, বেড বাড়ানো হচ্ছে মেডিকেলে

পরীক্ষায় প্রতিদিন প্রায় ৫০ শতাংশ পজিটিভ, বেড বাড়ানো হচ্ছে মেডিকেলে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
টাটকা আপডেট