বিজ্ঞাপন

মাঝেরহাটের ব্রিজ ভাঙার পর নড়েচড়ে বসেছে পুরসভা

পোস্তার পর মাঝেরহাট। কলকাতায় দুটি ব্রিজ ভেঙে পড়ায়, জেলার দুই শহরের মাঝের মহানন্দার ব্রিজ নিয়ে বেশ চিন্তিত শহরবাসী। ব্রিজ সংস্কারের নামে শুধু পিচের চাদর চড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন শহরবাসীরা। ব্রিজের সংস্কার হলেও তা যথোপযুক্ত নয়, তা স্বীকার করে নিয়েছেন ন্যাশনাল হাইওয়ে দপ্তরের এক আধিকারিক। কলকাতার ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছেন বিধায়কও। দ্রুত ব্রিজ সংস্কারের জন্য ন্যাশনাল হাইওয়ে দপ্তরের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

মাঝেরহাটের ব্রিজ ভাঙার পর নড়েচড়ে বসেছে পুরসভা

উল্লেখ্য, গত ৪ সেপ্টেম্বর বিকেল গড়াতেই হঠাৎ ভেঙে পড়ে মাঝেরহাট ব্রিজের একাংশ। তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর, পুলিশ, দমকল বাহিনী। এখন পর্যন্ত ২ জনের মৃত্যু হয়েছে এই ঘটনায়। গুরুতর জখম হয়েছেন অনেকেই। দুবছর আগে পোস্তার উড়ালপুল ভেঙে পড়াতে একাধিক লোকের মৃত্যু হয়েছিল। সেই সময়ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন শহরবাসী, দাবি তোলা হয়েছিল মহানন্দা প্রথম সেতু সংস্কারের। সময় গড়ানোর সাথে সাথে চাপা পড়ে যায় সেসবই। তবে পোস্তার পর মাঝেরহাটের ঘটনায় পুনরায় সেই আতঙ্ক তৈরি করেছে। সেই আতঙ্কের ছাপ দেখা যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দাবি উঠছে মহানন্দার প্রথম সেতু সংস্কারের।

শহরের এক বাসিন্দা জানান, মহানন্দার প্রথম সেতুর অবস্থাও খুব একটাও ভালো নয়। ব্রিজ সংস্কারের নামে দিনের পর দিন শুধু পিচের চাদর সাজিয়ে দেওয়া হয়। অথচ মেরামতের কোনোরকম পদক্ষেপ নেওয়া হয় না। প্রতিদিন অন্ততপক্ষে ১০ হাজার গাড়ি এই ব্রিজের উপর দিয়ে চলাফেরা করে। যেকোনো দিন ঘটে যেতে পারে বড়সড় দুর্ঘটনা। বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারে উত্তরবঙ্গের সঙ্গে দক্ষিণবঙ্গের যোগাযোগ।

ব্রিজের বেহাল অবস্থা নিয়ে সরব হয়েছেন জেলার বিধায়ক নীহাররঞ্জন ঘোষও। তিনি বলেন, মহানন্দার প্রথম সেতুটি ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের অন্তর্গত। ফলে ব্রিজটির রক্ষণাবেক্ষণ কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে। দীর্ঘদিন ব্রিজটির সংস্কার না হওয়ায় পুরসভার পক্ষ থেকে তাঁরা ন্যাশনাল হাইওয়ে দপ্তরের কাছে রিপোর্ট চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন। ১৫ দিনের মধ্যে রিপোর্ট না পেলে তাঁরা রাজ্য সরকারের মাধ্যমে আইনি পদক্ষেপ নেবেন। বাইপাস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দুর্ভাগ্যবশত বাইপাসও কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে। ন্যাশনাল হাইওয়ে দপ্তর নিজেদের কথা রাখতে পারছে না। চলতি বছরের জানুয়ারিতেই বাইপাসের কাজ শেষ হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখনো পর্যন্ত সেই কাজ শেষ হয়নি। প্রয়োজনে এনিয়ে তাঁরা রাস্তায় নামতেও রাজি।

এদিন ন্যাশনাল হাইওয়ে দপ্তরের অফিসে এগজিকিউটিভ অফিসারকে পাওয়া যায়নি। তবে পরিচয় গোপন রেখে এক আধিকারিক জানান, মহানন্দা প্রথম সেতুর দুপাশের এক্সপ্যানসান জয়েন্টগুলির অবস্থা খুব করুন। জয়েন্টগুলি সংস্কার করা হলেও তা যথোপযুক্ত নয়। সঠিক ভাবে কাজ শেষ করতে হলে কমপক্ষে ১ মাস বন্ধ রাখতে হবে ব্রিজ। বাইপাস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অর্থাভাবে বাইপাসের কাজ শেষ করা যাচ্ছে না। তবে টাকা এলে শীঘ্রই বাইপাসের কাজ শেষ করা হবে।

#DigitalDesk #Misc

বিজ্ঞাপন

MGH.jpg
পপুলার
1

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী
2

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল
3

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ
4

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি
5

পরীক্ষায় প্রতিদিন প্রায় ৫০ শতাংশ পজিটিভ, বেড বাড়ানো হচ্ছে মেডিকেলে

পরীক্ষায় প্রতিদিন প্রায় ৫০ শতাংশ পজিটিভ, বেড বাড়ানো হচ্ছে মেডিকেলে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
টাটকা আপডেট